কুষ্টিয়া বিত্তিপাড়া বাজারে স্যানিটারী ইন্সপেক্টর থাকতেও নেই কোন মনিটরিং ব্যবস্থা

 কে এম শাহীন রেজা কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি।।
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৫ মার্চ, ২০২২
  • ২৪৪ বার পঠিত

কুষ্টিয়া ইবি থানার বিত্তিপাড়া বাজারে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পশু জবাই করে মাংস বিক্রয় চলছে কোন প্রকার তালিকা ছাড়াই । স্যানিটারী ইন্সপেক্টর বাবুলের যোগসাজশে বিভিন্ন গ্রাম থেকে মরা, অসুস্থ, রোগা ক্রান্ত, ছোট খাটো গরু ছাগল ক্রয় করে এনে অসাস্থ্যকর পরিবেশে জবাই করে মাংস বিক্রয় করে যাচ্ছে।

নিয়ম অনুযায়ী পশু জবাই করার লাইসেন্স, গরম পানি, পশু রাখার শেড, পশুর রেস্টরুম, জবাই শেড, জবাই করার পর পরীক্ষাগার, ডাক্তার, ইন্সপেক্টর, জবাই করার হুজুর, ক্লিনার গার্ড ও মাংসের গায়ে সিল থাকতে হবে। যার কোনটাই সেখানে নেই।যেখানে সেখানে জবাই করে টেবিলের উপর বসে কসাইখানা বানিয়ে বিক্রি করে যাচ্ছেন মাংস।

 

 

এতে পরিবেশ মারাত্মকভাবে হুমকির মুখে পড়েছে। সূত্র জানায়, উজানগ্রাম ইউনিয়নের সেনিটারি ইন্সপেক্টর বাবুলকে ম্যানেজ করে অসাধু ব্যাবসায়ীরা সিন্ডেকেটের মাধ্যমে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

 

উক্ত বাজারে রবিবার ও বৃহস্পতিবার দু’দিন পানের বাজার বসে। সপ্তাহে চারদিন অন্য বাজার বসে। আর এই বাজারের দিনে অসাধু মাংস বিক্রেতারা যুগ যুগ ধরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পশু জবাই করে বিক্রয় করছে । পশু জবাই নিয়ন্ত্রণ ও মানসম্মত মাংস সরবরাহ নিশ্চিত করতে সরকারি আইন থাকলেও এর কোন প্রয়োগ নেই। এতে নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত মাংস পাওয়া এখন অনিশ্চিত বলে জনসাধারনের অভিযোগ।

 

 

এ বিষয়ে বনগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সানোয়ার হোসেনকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, আমি সদ্য দায়িত্ব গ্রহণ করেছি বিষয়টি আমি দেখব।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর