কুষ্টিয়া র‌্যাব ও জেলা প্রশাসনের যৌথ অভিযান ভুয়া ডাক্তার আটক

কে এম শাহীন রেজা, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ২০১ বার পঠিত

 

কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসন ও র‌্যাবের যৌথ অভিযানে এক ভুয়া ডাক্তার আটক হয়েছে। বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন এর কোর্ড জাল করে মানুষের সাথে প্রতারণার অপরাধে কে এইচ খান বিজয় নামে এক ভুয়া ডাক্তারকে আটক করা হয়।

আজ সোমবার দুপুরে শহরের মোল্লাতেঘরিয়া এলাকার কুষ্টিয়া অর্থোপেডিক এন্ড জেনারেল হাসপাতালে র‌্যাব ও জেলা প্রশাসন যৌথ অভিযান চালিয়ে ঐ ডাক্তারকে আটক করে। এ সময় তার সাটিফিকেট যাচাই-বাছাই করে বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল জাল কোর্ড জালিয়াতির প্রমান পাওয়া এম কে এইচ খান বিজয় নামে ভুয়া ডাক্তার কে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং ডাক্তার কে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার জন্য কুষ্টিয়া অর্থোপেডিক এন্ড জেনারেল হাসপাতালের মালিক সাইদুল ইসলামকে ১ লক্ষ টাকা জরিমানাসহ অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালীন অবস্থায় উক্ত ডাক্তারের ভোটার আইডি কার্ড জালিয়াতির প্রমাণও পাওয়া গেছে। ওই সময় এমন অভিযোগও উঠেছে উক্ত ডাক্তার এসএসসি পাসও নয় বলে মন্তব্য করেন একজন র্যাবের অফিসার। ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালীন অবস্থায় উক্ত স্থানে একজন মানবাধিকার কর্মী উপস্থিত ছিলেন। তিনি এক মন্তব্যে বলেন, উক্ত ডাক্তারের যে সাজা দেওয়া হয়েছে সেটা আমার কাছে পছন্দ হয় নাই এর চাইতে আরো বেশি সাজা হওয়া উচিত ছিল তার। কারণ তিনি এ পর্যন্ত কত ব্যক্তিকে মেরে ফেলেছেন তার ঠিক নাই এটাকে একজন খুনি হিসাবে ধরা যেতে পারত। তিনি আরো বলেন, একজন চোর চুরি করলে উক্ত চোরের সাজাও আমরা লক্ষ্য করেছি ৫ বছর হয়েছে। এক্ষেত্রে উক্ত ডাক্তার একজন খুনি হিসাবে তার এই সাজা টি আমার কাছে বোধগম্য বলে মনে হয়নি।
ভ্রাম্যমান আদালতের মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সবুজ হাসান ও কুষ্টিয়া র‌্যাব-১২ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মাহাফুজুর রহমানসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর