কুষ্টিয়া আলামপুরের ইউপি মেম্বারকে মারধরের ঘটনায় ঘরবাড়ী ভাংচুর ও লুটপাট

কে এম শাহীন রেজা, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি ॥
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৪ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৫৭ বার পঠিত

 

 

 

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আলামপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মজিবর মেম্বার গত ১ তারিখ সকালে একদল দুস্কৃতির হাতে হামলার স্বীকার হওয়ার পর ঐদিন রাত ৯ঘটিকার সময় মজিবর মেম্বারের সন্ত্রাসী বাহিনী কর্তৃক রাত্রে ৫/৬ জনের বাড়ী ভাংচুর ও লুটপাট করে নিয়ে যায়। বিষয়টির সরেজমিনে জানা যায়, গত ১ তারিখ সকাল ১০ টার সময় মজিবর মেম্বার আলামপুর গোরস্থান ব্রিজের কাছে পৌছালে ৪/৫ জন ব্যক্তি তার পথ রোধ করে বাঁশের লাঠি দিয়ে আঘাত করে তারা চলে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয়রা তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন, বর্তমানে তিনি সুস্থ আছেন। ঐ সময় তিনি বলেন, আমি কাউকে চিনতে পারি নাই সবাই হেলমেট পরা ছিল। কিন্তু ঐদিন রাত্রেই মজিবর রহমান নিজেই বাদী হয়ে ১৭ জনকে আসামী করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।
মজিবর মেম্বার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় ১ তারিখ রাত ৯টার সময় ৩০/৪০ জনের একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ ৩টি দলে বিভক্ত হয়ে পৃথক পৃথক ভাবে আলামপুরের তসের মন্ডল, কুটিমনি, রবজেল মন্ডল, জহির মন্ডল, মফিজ মন্ডল ও আজাদের ঘরবাড়ী ভাংচুর করে নগদ অর্থ, স্বর্ণলংকার ও গরু ছাগল লুট করে নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা জানান, মজিবর রহমান তার সন্ত্রাসী বাহিনীদের দিয়ে ঘরবাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাট করে প্রায় ১০ লক্ষ টাকা দেয় ক্ষতি সাধন করেছে। আমরা নিরীহ মানুষ আমাদের উপর এমন অত্যাচার কেন করল এ বিষয়ে প্রশাসনের সদয় দৃষ্টি কামনা করছি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর