কুড়িগ্রামে পাওনাদারের চাপে আত্মহত্যা করল প্রধান শিক্ষক

নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৫৮ বার পঠিত

 

 

 

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে গলায় দঁড়ি দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে প্রভাত চন্দ্র বর্মণ (৫১) নামের এক প্রধান শিক্ষক আত্মহত্যা করেছেন।সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল সোয়া ১০টার দিকে নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিক্ষক প্রভাত চন্দ্র বর্মণ উপজেলার নাজিমখান ইউনিয়নের সোমনারায়ণ সোনালুরকুটি গ্রামের মৃত বিষাদু চন্দ্র বর্মণের ছেলে ও শিমূলতলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তিনি।এছাড়া তিনি সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) এর রাজারহাট উপজেলা শাখার সভাপতি ছিলেন।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,নিহত ওই প্রধান শিক্ষক ঋণগ্রস্থ ছিলেন।পাওনাদারদের চাপে মানুষিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। এ নিয়ে পরিবারের সঙ্গেও বিবাদ চলছিল।

ঋণের টাকা মানুষজনকে ফেরত দিতে না পারার কারণে দুঃশ্চিতায় তিনি ছিলেন, সোমবার(১৯ফেব্রুয়ারী) সকাল সোয়া ১০টায় সকলের অগোচরে শয়ন ঘরের তীরের সাথে গলায় দঁড়ি দিয়ে ফাঁস দেন। বাড়ির লোকজন টের পেয়ে তাদের চিৎকারে এলাকাবাসীরা ছুটে এসে তাকে ফাঁস থেকে উদ্ধার করে রাজারহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। লাশের ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন,পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। সুরতহাল রিপোর্টের পর বিস্তারিত জানা যাবে।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) রুহুল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা ধারনা করছি এটি একটি আত্মাহত্যা। তার পরেও আমরা তদন্ত সাপেক্ষে বিষয়টির আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর