কুড়িগ্রামে বাইপাস সড়ক মেরামত করল ছাত্রলীগের কর্মীরা

নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১
  • ৫৭৪ বার পঠিত



কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে স্বেচ্ছা শ্রমের ভিত্তিতে বন্যায় ভেঙে যাওয়া একটি সংযোগ সড়ক মেরামত করা হয়েছে। ধরলার প্রবল স্রোতে কয়েকদিন আগে সদর উপজেলার শুলকুর বাজারে সংযোগ সড়কটি ভেঙে গেলে যাত্রাপুর, পাঁচগাছি, ঘোগাদহ, বেগমগঞ্জ ও ভোগডাঙা-এই ৫টি ইউনিয়নের মানুষ যাতায়াতের ভোগান্তিতে পড়ে। পণ্য আনা নেয়া ও মানুষ চলাচল করতে হতো নৌকার সাহায্যে। এতে প্রতিদিন হাজারো মানুষ ভোগান্তিতে পড়ে।

জন ভোগান্তি কমাতে এবং গুরুত্বপূর্ণ কুড়িগ্রাম-যাত্রাপুর সড়কটি সচল রাখতে জেলা ছাত্রলীগের কমর্ীরা বৃহস্পতিবার বালুর বস্তা ফেলে সড়কটি মেরামত করে দেয়। এসময় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহমেদ সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক আশিকুর রহমান, সাবেক সহসভাপতি ফিরোজ শাহী, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য আশরাফুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম পৌর ছাত্রলগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ ও সোলায়মা নগাদ্দাফিসহ ছাত্রলীগের কয়েকশ কমর্ী এই সড়ক মেরামত কাজে অংশ নেন। এসময় ছাত্রলীগের নেতা-কমর্ীরা বালুর বস্তা কাঁধে নিয়ে ভাঙা সড়কটি মেরামত কাজে অংশ নেন। সেখানে প্রায় ৫শ বালুভর্তি বস্তা ফেলা হয়।

ছাত্রলীগের নেতা-কমর্ীদের উদ্যোগে ভাঙা সড়কটি মেরামত হওয়ায় খুশি স্থানীয়মানুষ। শুলকুর বাজারের ব্যবসায়ী মেহেরুল করিম জানান, বন্যায় বাইপাস সড়কটি ডুবে যাওয়ায় মানুষ চলাচল ও পণ্য আনা নেয়া কঠিন হয়ে গিয়েছিল।

ছাত্রলীগের উদ্যোগে রাস্তা মেরামত হওয়ায় জনদুভোর্গ অনেক কমে যাবে। স্থানীয় স্কুল শিক্ষক লিটন মিয়া বলেন, ‘ছাত্র সংগঠনের এ ধরণের গঠন মুলক কাজ অবশ্যই প্রশংসার দাবী রাখে।’

এ সময় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহমেদ বলেন, ‘শুলকুর বাজারে একটি সেতুর কাজ দীর্ঘদিনেও শেষ না হওয়ায় বাইপাস সড়কটি দিয়ে মানুষ চলাচল করতো। দুই লাখ মানুষের চলাচলের একমাত্র সড়কটি বন্যায় ভেঙে যায়। সড়কটি মেরামত ও সংস্কার কাজে অংশ নিয়েছে ছাত্রলীগের নেতা-কমর্ীরা।’

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘ছাত্রলীগের কমর্ীরা কৃষকের ধান কাটা, মাস্ক বিতরণসহ নানা ধরণের গঠনমুলক ও মানবিক কাজে অংশগ্রহন করছে।’

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর