কুড়িগ্রামে ৩২ বছর পর সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৩১ মে, ২০২১
  • ২৮৩ বার পঠিত




৩২ বছর পর প্রতারণার মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পালিয়ে থাকা একজন আসামীকে গ্রেফতার করেছে চিলমারী থানা পুলিশ। সমবার আসামীকে কুড়িগ্রাম বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

চিলমারী মডেল থানা সূত্রে জানাযায়, উপজেলার পুটিমারী -কাজলডাংগা (মন্ডলপাড়া) গ্রামের মৃত-আব্দুল মান্নান মন্ডল এর পুত্র মোঃ খোরশেদ আলী মন্ডল (৬৫)কে একটি প্রতারণা মামলায় সিআর-৫৮/৮৭ (চিলমারী) ধারাঃ ৪০৬ পেনাল কোড এর বিচার শেষে ১ম শ্রেনীর বিজ্ঞ বিচারক জনাব মোঃ নুরুল ইসলাম গত ২০/১০/১৯৮৯ ইং সালে আসামী খোরশেদ আলমকে ০৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। তারপর থেকেই উক্ত আসামী দীর্ঘদিন যাবৎ পলাতক অবস্থায় ছিল ছিল।

নিজ এলাকা থেকে পালিয়ে গিয়ে উক্ত আসামীর প্রথমে গাজীপুর জেলার ভোটমারী এলাকায় রিক্সা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেছেন। অতঃপর তিনি গাজীপুর বাইমাইল এলাকায় একটা রিক্সা গ্যারেজ দিয়ে সেখানে বসবাস করছিলেন। এভাবে দীর্ঘদিন সেখানেই তিনি স্ত্রী সন্তানসহ গা ঢাকা দিয়ে থাকেন। অতঃপর তিনি কিছুদিন পূর্বে পেশা বদল করে টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানার বেইড়বাধ ইউপি এলাকায় জলছত্র বাজারে একটি চায়ের দোকান দিয়ে সেখানে বসবাস শুরু করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উলিপুর সার্কেল) জনাব,আল মাহমুদ হাসান এর নির্দেশনায় চিলমারী মডেল থানার এএসআই জিল্লুর রহমান ও এএসআই সহিদুল ইসলাম গত ২৯/০৫/২০২১ ইং তারিখ চিলমারী থানা থেকে টাঙ্গাইলে যান। টাঙ্গাইল মধুপুর থানায় পৌছার পর ০৭ কিমি দূরে অরন খোলা পুলিশ ফাড়ি এলাকা থেকে ৩২ বছর পর আসামী খোরশেদ আলী মন্ডলকে ৩০/০৫/২০২১ ইং তারিখ সেখান থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এ ব্যাপারে চিলমারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আনোয়ারুল ইসলামের সাথে কথা বলে তিনি বলেন, বিধি মোতাবেক আসামীকে গ্রেফতারের পর টাঙ্গাইল,মধুপুর থানা হতে ৩১/০৫/২০২১ ইং তারিখ সকালে চিলমারী মডেল থানায় নিয়ে আসা হয়। অতঃপর অদ্যই তাকে কুড়িগ্রাম বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর