গাংনীতে কিশোরীর ভাসমান মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৮ জুন, ২০২১
  • ৪৯৩ বার পঠিত

 

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়নের গাঁড়াডোব গ্রামের পোড়াপাড়ায় একটি পুকুর থেকে শান্তা খাতুন (১১) নামের এক কিশোরীর ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। কিশোরী শান্তা পোড়াপাড়ার শামীম হোসেনের মেয়ে।

সোমবার সন্ধ্যায় বাড়ির পাশে ইটভাটা সংলগ্ন একটি পুকুরের পানি থেকে শান্তার ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা জানান পোড়াপাড়ার একটি ইটভাটা সংলগ্ন পুকুরের পানিতে শান্তার মরদেহ ভাসতে দেখে কয়েকজন প্রতিবেশী। সে বেঁচে আছে ভেবে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। এসময় কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শান্তা গোসল অথবা খেলা করতে গিয়ে অসাবধানবশত পানিতে ডুবে মারা গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

নিহত শান্তার পারিবারিক সূত্র জানায় শান্তা দুপুরের দিকে খেলা করতে বাড়ির বাইরে যায়। বিকেল গড়িয়ে গেলেও সে বাড়ি ফিরে আসেনি। এসময় অনেক খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে বাড়ির নিকট ইটভাটা সংলগ্ন পুকুরের পানিতে শান্তার মরদেহ ভাসতে দেখে কয়েকজন প্রতিবেশী। কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে বুঝে উঠতে পারছিনা।

গাংনী থানা সূত্র জানায় মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত শেষে মৃত্যুর কারণ বলা সম্ভব হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর