গাংনীতে বৃষ্টি নেই,কাঁদছে কৃষক

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২২৯ বার পঠিত
 মেহেরপুর গাংনী উপজেলা বর্ষা মৌসুমে পানির অভাবে মাঠি ফেটে চৌচির, কাঁদছে কৃষক্ বৃহস্পতিবার(১সেপ্টেমবার) গাংনী উপজেলার সীমান্ত বর্তী গ্রাম গুলো সরেজমিনে ঘুরে দেখলাম, তেঁতুলবাড়ীয়া, করমদী, সহড়াতলা, হাড়াভাঙ্গা,কাজিপুরের ধানের জমিতে পানির অভাবে মাটি ফেটে চৌচির,বিপাকে কৃষকরা।
জানা যায় মোঃ রতন মিয়া সহড়াতলার একজন কৃষক তিনি বিগত বছর গুলোতে বর্ষার পানিতে ধান লাগিয়ে ঘরে উঠাতো এবার তার ভিন্ন। কৃষক রতন মিয়া স্যালো মেসিনে সেচ দিয়ে জমিনে ধান রোপন করলেও বৃষ্টি না হওয়ার কারনে তার ধানের জমিতে তেলের দাম বেশি হওয়ায় সেচ দিতে পারছেন না। তেঁতুলবাড়ীয়া ইমরান ৩ বিঘা জমিতে বৃষ্টির আশায় ধান রোপন করলেও বর্তমানে পানির অভাবে ধানের চারা মরে যাচ্ছে।
কাজিপুর গ্রামের মহববত ৫ বিঘা জমিতে ধানের চারা রোপন করে বিপাকে কৃষক। তার বেশিরভাগ ধানের চারা পানির অভাবে মরে গেছে তিনি বলেন তেলের দাম সরকার কমিয়েছে শুনেছি কিন্তু গ্রামে এখনো আগের দামে তেল বিক্রি হচ্ছে তাই সে তেল কিনে আবাদ করা সম্ভব না বলে জানিয়েছেন। বর্তমানে ৯৫% ধানের জমিতে পানি নাই মাটি ফেটে চৌচির ধানের চারা মরে যাচ্ছে। ধানের আশা ছেড়ে দিয়েছে কৃষকরা।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর