গাংনীর পৃথক দুটি স্থানে ছিনতাই

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২১ মে, ২০২২
  • ৩৪১ বার পঠিত

মেহেরপুরের গাংনীর পৃথক দুটি স্থানে শুক্রবার রাতে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ছিনতাইকারীরা পথচারী ও মাইক্রো বাসের যাত্রিদেরকে জিম্মি করে নগদ টাকা ও স্বর্নালঙ্কারসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ছিনতাই করে পালিয়ে যায়।

ছিনতাইয়ের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে। ছিনতাইয়ের কবলে পড়া বামন্দীর হার্ডওয়ার ব্যবসায়ি সবুজ জানান, তিনি এক আত্মীয়র দাফন শেষে অপর এক আত্মীয়কে কল্যাণপুর গ্রামে রেখে বাড়ি ফিরছিলেন। দেবীপুর- বামন্দী সড়কের পুলিশ বক্সের কাছে ৮/১০ জন ছিনতাইকারী তার গতিরোধ করে ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এর পরপরই রাজশাহী থেকে চিকিৎসা নিয়ে ফিরে আসা ৫/৬ জন রোগির কাছ থেকেও টাকা ও স্বর্নালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়।

 

অপরদিকে ঝোড়াঘাট- কল্যাণপুর মাঠের মধ্যেও ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। দেবীপুর গ্রামের জয়নাল জানান, তার ভাতিজা সুমন বন্ধুর বাড়ি থেকে ফেরার পথে ছিনতাই কারীদের কবলে পড়ে। ছিনতাইকারীরা তার কাছে থাকা কিছু টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে মাঠের ভিতরে ছুড়ে ফেলে। একই সময়ে গ্রামের মকলেছসহ ৪/৫ জন ইজিবাইক যাত্রিদেরকে জিম্মি করে তাদের টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয়। অনেক সময় ছিনতাইকারী তাদেরকে রাস্তার পাশে বসিয়ে রাখে। পরে সুযোগ বুঝে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। দেবীপুর গ্রামের জয়নাল জানান, তার ভাতিজা সুমন বন্ধুর বাড়ি থেকে ফেরার পথে ছিনতাই কারীদের কবলে পড়ে।

 

ছিনতাইকারীরা তার কাছে থাকা কিছু টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে মাঠের ভিতরে ছুড়ে ফেলে। একই সময়ে গ্রামের মকলেছসহ ৪/৫ জন ইজিবাইক যাত্রিদেরকে জিম্মি করে তাদের টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয়। অনেক সময় ছিনতাইকারী তাদেরকে রাস্তার পাশে বসিয়ে রাখে। পরে সুযোগ বুঝে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। গাংনী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে তবে দুয়েক জনের কাছ থেকে অল্প কিছু টাকা নিয়েছে। গণহারে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেনি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর