ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলায় পুতনিকে ধর্ষণের অভিযোগে দাদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার

ঝিনাইদহ হরিণাকুন্ডু থেকে বাচ্চু মিয়া
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৩১ বার পঠিত

 

 

 

(১১ এপ্রিল) রাতে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে মামলা করার পরপরই তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হরিণাকুণ্ডু থানার ওসি জিয়াউর রহমান।

গ্রেফতারকৃত ওই দাদার নাম আতিয়ার রহমান (৬৮)। তার বাড়ি হরিণাকুণ্ডু উপজেলার চটকাবাড়িয়া গ্রামে। ভুক্তভোগী ওই পুতনির বয়স মাত্র ৫ বছর। অভিযুক্ত ব্যক্তি শিশুটির দাদার ভাই।

শিশুটির বাবা বলেন, ঈদের দিন দুপুরে তার মেয়ে বাড়ির পাশে খেলছিল। এসময় আমার চাচা আতিয়ার রহমান তাকে মুরগির বাচ্চা দেখানোর কথা বলে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে বাড়ির পেছনে একটি ঝোপের মধ্যে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এ কথা কাউকে বলতেও নিষেধ করে।

তিনি বলেন, তার মেয়ে বাড়ি এসে অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং কান্নাকাটি করতে থাকে। পরে শিশুটির মা তাকে জিজ্ঞাসা করলে ঘটনাটি বলে সে। পরে অভিযুক্ত আমার চাচার কাছে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে গেলে তিনি মিমাংসার চেষ্টা করে। এরমধ্যে তার মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে শিশুটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

হরিণাকুণ্ডু থানার ওসি জিয়াউর রহমান বলেন, মামলার পর রাতেই অভিযুক্তকে তার বাড়ির পাশ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) আদালতে পাঠানো হয়েছে ধর্ষণ মামলায় আটক ওই ব্যক্তিকে

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর