টোটালই ফেডাপ; কোটি কোটি টাকা ঋণ নিয়ে পাগল হয়ে গেছি– জনি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১
  • ২২৫ বার পঠিত

টোটালই ফেডাপ; কোটি কোটি টাকা ঋণ নিয়ে পাগল হয়ে গেছি– জনি

টোটালই ফেডাপ তো ভাই, টোটালই ফেডাপ, কি অবস্থায় আছি, কোটি কোটি টাকা ঋণ, পাগল হয়ে গেছি। আপনার সাথে কথা বলতে কি, কোন মেন্টালিটি নাই। পুরো পাগল হয়ে আছি। কোটি কোটি টাকা ঋণ নিয়ে বসে আছি এখানে, আর আপনি এসেছেন এখানে ইয়ে করতে। কি বলবেন আমাকে, পাগল তো আমি। সারাবছর তেমন ব্যবসা হয় না। ঈদে একটু ভালো বেচাকেনা হয়। এর আগের ঈদেও লকডাউনে আমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি এবারও তাই। এদিকে ঋণের টাকা তো বাড়ছে ব্যাংককে এভাবে চলতে থাকলে পথে বসতে হবে আমাকে।

আমার মাসে কত টাকা কিস্তি দেওয়া লাগে জানেন? চলমান লকডাউনে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে মেহেরপুর শহরের হোটেল বাজার এলাকায় পাটি পাতা নামক একটি ব্যবসা কেন্দ্রে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে গিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে নেতৃত্বদানকারী সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল হাসান এর সামনে এভাবেই ক্ষোভ প্রকাশ করছিলেন পাটি পাতার স্বত্বাধিকার আরিফুর রহমান জনি।

জানা গেছে লকডাউন এর কারণে মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল হাসানের নেতৃত্বে পাটি পাতার দোকান খোলা পেয়ে সেখানে প্রবেশ করেন। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালে সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল হাসানের সঙ্গে কথা বলার এক পর্যায়ে জনি এভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ব্যবসায়ীরা লক্ষ লক্ষ টাকার মালামাল উত্তোলন করলেও রোজার একসপ্তাহ পেরিয়ে গেছে। লকডাউন এর কারণে বেচা বিক্রি বন্ধ। কিভাবে ঋণের টাকা পরিশোধ করবেন? সে নিয়ে মূলত ক্ষোভ প্রকাশ করছিলেন। পরে অবশ্য মুসলিকার মাধ্যমে সেখানে কোন জরিমানা আদায় করা থেকে বিরত থাকেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর