নড়াইল ২ আসনে নির্বাচনী বৈষম্যে বিস্মিত লোহাগড়া বাসি।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৭৪ বার পঠিত

 

 

 

নির্বাচন যত বেশি ঘনিয়ে আসছে নির্বাচনী বৈষম্যতা তত বেশি ধনীভূত হচ্ছে নড়াইল ২ আসনে। নৌকা প্রতীকে মিডিয়া কোটায় মনোনয়ন প্রত্যাশী লায়ন নুর ইসলাম নির্বাচনী প্রচারণার শুরুতেই৪/৫মাস পূর্বে নড়াইলে টানানো পোস্টার,বিলবোর্ড ছেঁড়া, বিলবোর্ডের উপরে লাইভ দেখিয়ে প্রচারে সর্বস্তরের জনগণ লেখা সম্পূর্ণ বেআইন উল্লেখপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের হুমকি প্রদর্শন করেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নড়াইলের কোন এক সাবেক ছাত্রনেতা। অথচ নড়াইলের প্রার্থীদের পোস্টারের নিচে প্রচারেঃসর্বস্তরের জনসাধারণ লেখা থাকলে তাতে কোন আপত্তি নেই, ওটা তাদের জন্য বিধি সম্মত।
সম্প্রতি ঘটে যাওয়া লোহাগড়া থেকে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী এম এ আব্দুল্লাহ,র গাড়ি বহরে অনাকাঙ্খিত, সন্ত্রাসী হামলা হয় নড়াইলের মাইজপাড়ায়। দেশি-বিদেশি অস্ত্রসহ সজ্জিত সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা নির্যাতনের শিকার হয় নৌকা সমর্থক লোহাগড়া বাসি।ভাঙচুর করা হয় অসংখ্য গাড়ি।
অথচ এই লোহাগড়াই নেতৃত্ব দিয়েছে প্রায় আজীবন নড়াইলের।
নড়াল অপেক্ষা ৭০থেকে ৮০হাজার ভোট বেশি লোহাগড়ায়।স্বাধীনতার পর থেকে এ পর্যন্ত নৌকা প্রতীকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছে লোহাগড়ার ভোটেই।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজেই তার সাক্ষ্য।বর্তমান নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগ কে করা হয়েছে কয়েক ভাগে বিভক্ত। সন্ত্রাসী হামলা, বৈষম্যতা, সন্ত্রাসী বাহিনী গঠন, দলের ভেতরে বিভক্তি এগুলো কিসের আলামত? এ নিয়ে চিন্তিত বঙ্গবন্ধুর আদর্শের বিজ্ঞজনেরা।আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করার একটা বড় ষড়যন্ত্র বলেও মনে করেন এ মহল। এদিকে
লোহাগড়ার জনমনে দেখা দিয়েছে প্রকাশ্য গভীর চাপা ক্ষোভ।
এ বিষয়ে নড়াইল ২ আসনে মিডিয়া কোটায় মনোনয়ন প্রত্যাশী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভাজন লায়ন নুর ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন এটি একটি পরিকল্পিত বিষয়।যাহা আওয়ামী রাজনীতি ধ্বংসের সুদূর প্রসারী এক নীল নকশা।নড়াইলের আগাছা পূর্ণ আওয়ামী রাজনৈতিক অঙ্গন কে আগাছা মুক্ত করার বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য তিনি সরাসরি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর