নানা কর্মসূচির দিয়ে শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে মহান মে দিবস অনুষ্ঠিত

মোঃ শহিদুল ইসলামঃ স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২ মে, ২০২৩
  • ৭৪ বার পঠিত

 

চট্টগ্রাম নগরীর পতেঙ্গা কাঠগড়সহ বিভিন্ন এলাকায় রিকশা,ব্যাটারী রিকশা-ভ্যান ও ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ চট্টগ্রাম জেলার উদ্যোগে মহান মে দিবস (শ্রমিক দিবস-২০২৩) উদযাপনে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত নেতৃবৃন্দরা এসময় তাদের দাবি দফা তুলে বক্তব্য রাখেন।

১মে, ২০২৩ (রোজ সোমবার) সকাল ১০ টায় ডিনাইন রোড থেকে কাঠগড় মোড়ে একটি মিছিল এবং মনির হোসেন সদস্য সচিব, ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ,এর সভাপতিত্বে ও সদস্য রায়হান উদ্দিনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, আল কাদেরী জয় ইনচার্জ, বাসদ চট্টগ্রাম জেলা।
মহিন উদ্দিন উপদেষ্টা, ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ। মোহাম্মদ শামীম হোসেন আহবায়ক, ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ,পতেঙ্গা থানা শাখা। মোহাম্মদ হাশেম আহবায়ক, ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ, হালিশহর থানা শাখা।মোহাম্মদ-সোলাইমান আহবায়ক, এম আর লাইন। মোহাম্মদ-শহীদ মোল্লা সদস্য, ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ, পতেঙ্গা থানা শাখা। আহমদ জসীম সদস্য, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট চট্টগ্রাম জেলা শাখা। মোহাম্মদ-সুমন প্রচার সম্পাদক, ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ, পতেঙ্গা শাখা। মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর সদস্য সচিব, এম আর লাইন প্রমুখ।

উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,
■ অবিলম্বে ইজিবাইক ও ব্যটারীচালিত যানবাহনের লাইসেন্স দিতে হবে।
■ ব্যটারিচালিত যানবাহনে হয়রানি, নির্যাতন, ডাম্পিং, অবৈধ রেকারিং চাঁদাবাজি বন্ধ করতে হবে।
■ সকল শ্রমিকের ন্যায্য অধিকার, কাজ ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

সভাপতি মোঃ মনির হোসেন বলেন, ইজিবাইক সংশ্লিষ্ট চালক-মালিকবৃন্দ, ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদের পক্ষ থেকে সংগ্রামী শুভেচ্ছা নিবেন। আপনারা নিশ্চয়ই অবগত আছেন, দীর্ঘদিন ধরে ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক ও রিকশার নিবন্ধন, নীতিমালা, রুট পারমিট ও লাইসেন্সের জন্য আন্দোলন চলছে। গত ৩০ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ইলাহি বলেছেন, ব্যাটারীচালিত অটোরিকশার লাইসেন্স শিঘ্রই দেওয়া হবে। ফিটনেস ঠিক করে অটোরিকশার বৈধতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়েছে। তিনি একটি বড় কনভেনশন করে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে স্বীকৃতি দেওয়ার কথা জানিয়েছেন। এতেই আমাদের এই দীর্ঘ আন্দোলনের যৌক্তিকতা প্রমাণিত হয়।

বন্ধুগণ, আমরা দয়া চাই না, অধিকার চাই। বর্তমানে ব্যাটারীচালিত যানবাহন দেশের অর্থনীতিতে এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। প্রায় ৫০-৬০ লাখ চালক সহ দুই-আড়াই কোটি মানুষের জীবন ও জীবিকা এই খাতের উপর নির্ভরশীল। অথচ আমরা দেখি অসহায় চালকদের হয়রানি, নির্যাতন, অবৈধ রেকারিং ও জরিমানার শিকার হতে হচ্ছে। এর থেকে মুক্তি পেতে হলে আমাদের মিলিত সংগ্রামই একমাত্র গ্যারান্টি। তাই আজ মহান মে দিবসের ১৩৭তম বার্ষিকী পালনের মধ্যে দিয়ে ব্যাটারীচালিত ইজিবাইক ও যানবাহনের চালক-মালিকদের ন্যায্য আন্দোলনে এগিয়ে আসার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর