পাল্টে গেছে হরিণাকুণ্ডু স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

হরিণাকুণ্ডু থেকে মোঃ রাব্বুল ইসলাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১
  • ৩৬৮ বার পঠিত

 

ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলাতে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দিয়ে হাসপালের রোগীদের সেবা দিতে কাজ করে যাচ্ছেন ডাঃ মোঃ জামিনুর রশিদ। এখানে একটিমাত্র স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সেবার মান বাড়াই বাড়ছে নানা ধরনের রোগীদের চাপ।বদলে গেছে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতায়, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটির চিরোচেনা চিত্র।জ্বরাজীর্ণ্য হাসপাতালের অভিশাপ থেকে নানা জটিলতা কাটিয়ে উঠে এসেছে কমপ্লেক্সটি ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলাতে ৮টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌরসভা,জানাগেছে ২০১১ আদমশুমারী অনুযায়ী এই জনপদটিতে ১ লাখ ৯৭ হাজার ৭ শত ২৩ জন মানুষের আবাসস্থল। এই মানুষগুলোর একটি মাত্র উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। কোভিড ১৯ এ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নিরবিচ্ছিন্ন সেবা দিয়ে যাচ্ছে। হাসপাতালটির ডাক্তার নার্স সহ অন্যান্যরা।হাসপাতাল থেকেই রোগীদের দেয়া হচ্ছে শতভাগ ঔষুধ।নানা প্রতিকুলতাকে পাশ কাটিয়ে জনবল সংকটের মধ্যে ও সেবা দিয়ে যাচ্ছে এই হাসপাতালিটির চিকিৎসকরা।হাসপাতালে রোগীদের বিনা মূল্যে চিকিৎসা প্রদান,আউট ডোর এবং ইনডোর পরিস্কার পরিচ্চন্নতা, চালু করা হয়েছে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের জন্য ওয়েটিংরুম, নার্সিং ডর্বেটরী সংস্কার সহ নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ড।
সেবার মান আরও বৃদ্ধি করার কথা জানালেন চিকিৎসকরা।
সবার জন্য উন্নত মানের সেবা দেয়া হচ্ছে বলে জানান পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ জামিনুর রশিদ।
আগের চেয়ে সেবার মান অনেক উন্নত বলে জানালেন ঔষুধ বিক্রেতা সাইফুর রহমান বাদল।
আগের তুলনায় রোগী বেড়েছে অনেক বেশী সেবার মান বাড়াই খুশী চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর