প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

মোঃ শহিদুল ইসলাম সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৩ মে, ২০২২
  • ৩৮১ বার পঠিত

গত ১৯শে মে সহ অদ্যাবধি দৈনিক যুগান্তরের অনলাইন,নিউজ পোর্টাল রংপুর টাইম অনলাইন নিউজ পোর্টাল , দৈনিক আজকের পত্রিকা, দৈনিক আমার সংবাদ সহ একাধিক পত্রিকা ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল ”ডিমলায় লেবুর বিরুদ্ধে দুই নারীর শ্লীলতাহানী অভিযোগ” প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। উক্ত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি।

 

এই সংবাদটি মিথ্যা বানোয়াট ও পুরোটাই উদ্দেশ্যে প্রণীত। কারণ একটি কুচক্রী মহল আমার সততা, মানসম্মান ও ব্যক্তিগত ইমেজকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য জাতির বিবেক সাংবাদিক ভাইদের মিথ্যা তথ্য দিয়ে এই সংবাদটি প্রকাশিত করেছে। এছাড়াও আমি মনে করি, আমার স্ত্রী মোছাঃ রিনা বেগম পরিদর্শিকা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র নাউতারা, ডিমলা নীলফামারী। তাকে কর্মস্থল থেকে সরানোর জন্য একটি কুচক্রী মহল আমার বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে আমার সম্পর্কে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। যার বহিঃপ্রকাশ এটি প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে, আমার স্ত্রী মোছাঃ রিনা বেগম (৫০) স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র নাউতারা ইউনিয়নে কর্মরত। কর্মস্থল থেকে আমাদের বাড়ি ৮ থেকে ৯ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

 

প্রতিদিন সকালে মোটরসাইকেল যোগে আমার স্ত্রীকে তার কর্মস্থলে দিয়ে আসা হয়। আবার অফিস শেষে মোটরসাইকেল যোগে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। ঘটনার তারিখ গত ১১/৫/২২ইং বুধবার প্রতিদিনের ন্যায় আমি আমার স্ত্রীকে মোটরসাইকেলযোগে নিয়ে আসার জন্য প্রায় বিকাল ৪ টার কাছাকাছি সময়ে স্বাস্থ্য যাওয়া হয়। আমি যখন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে অবস্থান করি তখন আমার সঙ্গে আমার স্ত্রী ছাড়াও ল্যাম্প মাঠকর্মী বেবী আক্তারসহ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সেবা নিতে আসা আরও অনেকেই ছিলো কিন্তু অভিযোগকারী আশেপাশে কোথাও ছিলেন না। আমার স্ত্রীসহ আমি যখন অফিস থেকে বের হয়ে আসি তখন দরজার সামনে তার সঙ্গে দেখা হয়। আমার স্ত্রী তাকে অফিসের সবকিছু গুছিয়ে রাখার জন্য বলে আমার সঙ্গে চলে আসে।

 

উল্লেখ্য পেশাগত দক্ষতার কারণে কর্ম এলাকায় আমার স্ত্রীর সুনাম রয়েছে। শুধুমাত্র এই কারণে ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার স্ত্রীকে তার কর্মস্থল থেকে সরানোর জন্য একটি কুচক্রী মহল ঘটনার ৮ দিন পর ১৯/৫/২২ইং তারিখে বিভিন্ন অনলাইন ও দৈনিক পত্রিকায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট কল্প কাহিনী বানিয়ে কথিত দুই নারী অশ্লীলতাহানীর অভিযোগ তুলে যা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট, কুরুচিপূর্ণ সম্মানহানিকর, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত যার কোনো সত্যতা নাই।

 

একটি কুচক্রী মহল আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচারে লিপ্ত হয়। তাই প্রকাশিত সংবাদটির তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। প্রতিবাদকারি,মো. আব্দুল গাফফার (লেবু) ঝুনাগাছ চাপানী, উপজেলাঃ- ডিমলা, জেলাঃ- নীলফামারী।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর