নিউমুরিং হতে অপহরণ হওয়া শিশুটি কে লক্ষীপুর জংগল থেকে উদ্ধার

মোঃ শহিদুল ইসলাম সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২২
  • ৩১ বার পঠিত

 

 

চট্টগ্রামের ইপিজেড থানাস্থ (নিউমুরিং)জাহাঙ্গীর ব্রাদার্স এর টিনসেড বিল্ডিং হতে চাঞ্চল্যকর শিশু অপহরণ মামলার ঘটনায় ইপিজেড থানা পুলিশ কর্তৃক অপহৃত ০৭ মাস বয়সের শিশু মোঃ আরিফ’ কে উদ্ধার এবং অপহরণ চক্রের ৭ সদস্যকে গ্রেফতার। গত ০৭ অক্টোবর সন্ধ্যায় অনুমান ৭টা হতে ৭.১৫ টার মধ্যে নিউমুরিং, জাহাঙ্গীর ব্রাদার্সের টিনশেড বিল্ডিং এর নীচতলা, ৪নং রুম হতে এজাহার নামীয় আসামী ১। মোঃ মনির আহম্মদ মামুন (৩০), ২। কামরুল হাসান খান (১৯), ৩ । তানজিলা আক্তার (১৮) ও ৪। রুবেল (২৫) সহ অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন আসামীগণ পরস্পর যোগসাজসে ও সহায়তায় শিশু মোঃ আরিফ (০৭ মাস)’কে অপহরণ করিয়া নিয়ে যায়। উক্ত ঘটনায় শিশুর মা আমেনা বেগম(২৪) থানায় হাজির হইয়া এজাহার দায়ের করলে ইপিজড থানার মামলা নং-২২, তারিখ-২৮/১০/২০২২ইং, ধারা-নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ৭/৩০ রুজু করা হয়।

 

উক্ত ঘটনায় তাৎক্ষনিক অফিসার ইনচার্জ সহ থানার সঙ্গীয় অফিসার ও মোবাইল টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আসামী ১। কামরুল হাসান খান (১৯), পিতা-মোঃ সিদ্দিক উল্লাহ কামাল, মাতা-মৃত মোছাঃ সাজেদা বেগম ও ২। তানজিলা আক্তার (১৮), স্বামী-কামরুল ইসলাম, পিতা-মোঃ শফিক, মাতা-মমতাজ বেগম, উভয় সাং-পরাগালপুল, ডাকঘর-মহাজন হাট, থানা-জোরারগঞ্জ, জেলা-চট্টগ্রাম, বর্তমানে- নিউমুরিং, জাহাঙ্গীর ব্রাদাসের টিনশেড বিল্ডিং, নীচতলা, ০৪নং রুম, থানা-ইপিজেড, জেলা-চট্টগ্রাম’ দেরকে গ্রেফতার করা হয়।

 

জিজ্ঞাসাবাদে তাদের দেওয়া তথ্য মতে ঘটনার সহিত জড়িত থাকা অপর আসামী ৩। রুবেল (২৫), পিতা-হোসেন আহাম্মদ, মাতা-ফাতেমা বেগম, সাং-জালিয়াকান্দি, সুজা মিয়ার বাড়ী, ইটখোলা ইউনিয়ন, থানা-চন্দ্রগঞ্জ, জেলা-লক্ষীপুর, বর্তমানে-মাইটেল্লেপাড়া, সাবের সওদাগরের কলোনী, বার কোয়ার্টার, থানা-পাহাড়তলী, জেলা-চট্টগ্রাম’ কে অভিযান পরিচালনা করে পাহাড়তলী থানা এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়।

 

গ্রেফতারকৃত আসামীদের প্রদত্ত তথ্য ও স্বীকারোক্তি মোতাবেক এবং তথ্যপ্রযুক্তির সহযোগিতায় উপ-পুলিশ কমিশনার (বন্দর) মহোদয়ের সার্বিক দিক নির্দেশনায় সহকারী পুলিশ কমিশনার (বন্দর জোন) ও অফিসার ইনচার্জ এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সসহ চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়েজিদ বোস্তামী থানাধীন আমিন জুটমিল এলাকা হইতে ঘটনার সহিত জড়িত মামলার তদন্তে প্রাপ্ত আসামী ৪। মোঃ ফয়সাল প্রকাশ নাজিম উদ্দিন মুন্না প্রকাশ মুন্না চোরা(২৩), পিতা-জামাল মিয়া, মাতা-শিমু আক্তার, সাং-দক্ষিণ চাড়িপুর, মহিপাল, গাউছিয়া হোটেলের পিছনে, থানা ও জেলা-ফেনী, বর্তমানে-আতুরা ডিপো, কবিরের বাপের কলোনী, থানা-বায়েজিদ বোস্তামী, জেলা-চট্টগ্রাম, ও ৫। মোঃ শফি প্রকাশ মিজানুর রহমান প্রকাশ মিজান হাজারী প্রকাশ মিজাইন্না চোরা(২৫)’, পিতা- মোঃ হোসেন প্রকাশ হোসাইন্না চোরা প্রকাশ কালা চোরা, মাতা-ফাতেমা বেগম, সাং-ইটাখোলা, সুজা মিয়ার বাড়ী প্রকাশ কালাচোরার বাড়ি, থানা-চন্দ্রগঞ্জ, জেলা-লক্ষীপুর, বর্তমানে-আতুরা ডিপো, কবিরের বাপের কলোনী, থানা-বায়েজিদ বোস্তামী, জেলা-চট্টগ্রাম’ দ্বয়কে গ্রেফতার করা হয়।

 

উল্লেখিত আসামীদেরকে পুলিশ রিমান্ডে আনিয়া জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে এবং তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় মামলা ঘটনার সহিত জড়িত তদন্তে প্রাপ্ত আসামী ৬। সীমা আক্তার প্রকাশ কাঞ্চনী(৩৫), স্বামী-মোঃ শফি প্রকাশ মিজানুর রহমান প্রকাশ মিজান হাজারী প্রকাশ মিজাইন্না চোরা(২৫)’, পিতা-আলী আকবর, সাং-ইটাখোলা, সুজা মিয়ার বাড়ী প্রকাশ কালাচোরার বাড়ি, থানা-চন্দ্রগঞ্জ, জেলা-লক্ষীপুর’ কে নোয়াখালী জেলার সেনবাগ থানাধীন বিষ্ণুপুর এলাকা হইতে গ্রেফতার করা হয়।

 

পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃত আসামীদের দেওয়া তথ্যের আলোকে এবং তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অদ্য ২২/১১/২০২২ইং তারিখে লক্ষীপুর জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন মান্দারী পূর্ব বাজার গহিন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মামলার ঘটনায় জড়িত তদন্তে প্রাপ্ত আসামী ৭। রোমানা আক্তার(২৮), স্বামী-মোঃ সুজন, পিতা-হোসেন আহাম্মদ, মাতা-ফাতেমা বেগম, সাং-দূর্গাপুর, দিঘলী বাজার, থানা-চন্দ্রগঞ্জ, জেলা-লক্ষীপুর’কে গ্রেফতার পূর্বক তার হেফাজত হতে অপহৃত শিশু মোঃ আরিফ (০৭ মাস)’কে উদ্ধার করা হয়।

 

উক্ত আসামীরা একটি সংঘবদ্ধ অপহরণকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য। মূলত বিক্রির উদ্দেশ্যে অপহৃত শিশু মোঃ আরিফ (০৭ মাস)’কে আসামীগণ ঘটনাস্থল হইতে চুরি করিয়া অন্যত্র নিয়ে যায়। তাছাড়াও উক্ত আসামীদের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রুজু আছে। আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর