মেহেরপুরে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা থেকে রেহাই পেতে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৪৮১ বার পঠিত

মেহেরপুরে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা থেকে রেহাই পেতে সংবাদ সম্মেলন

মেহেরপুর প্রতিনিধিঃমেহেরপুরে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা থেকে রেহাই পেতে সংবাদ সম্মেলন করেছে এক যুবক। ওই যুবক মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার জোড়পুকুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা সোহেল রানা।
মঙ্গলবার দুপুরে মেহেরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবে ওই সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, একই গ্রামের রিমা নামের একটি মেয়ের সাথে প্রায় ১০ বছর আগে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পারিবারিক কারণে তাদের বিয়ে হয়নি। সোহেল রানা অন্যত্র বিয়ে করেছে এবং এখন দুই সন্তানের জনক। কিছুদিন আগে সোহেল রানা ঐ মেয়ের বাড়ির পাশ দিয়ে ওষুধ কেনার জন্য যাচ্ছিল। এসময় মেয়ের বাবা তার ওপর হামলা চালায়। পরেরদিন গাংনী থানায় একটি অভিযোগ দেয়। গাংনী থানা ঘটনা তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা না পেয়ে মামলা গ্রহণ করেননি। পরে ওই মেয়ে নিজে বাদী হয়ে মেহেরপুর কোর্টে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। মামলা করার পর ৫ লক্ষ টাকা দিতে হবে অথবা প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়ে ওই মেয়েকে বিয়ে করার প্রস্তাব দিচ্ছে রিমার পরিবারের লোকজন।আর্থিকভাবে ক্ষতি সাধন এবং মান সম্মানের হানিসহ সমাজের চোখে হেই প্রতিপন্ন করার নিমিত্তে এই ষড়যন্ত্রমূলক মামলা করা হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন সোহেল রানা।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য মেম্বার পদপ্রার্থী এবং রিমার চাচাও সম্ভাব্য মেম্বার পদপ্রার্থী। এই মূহুর্তে আমাকে সমাজের মানুষের কাছে খারাপ প্রমাণ করার নিমিত্তে তাদের মেয়েকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে বলে জানান তিনি।

 

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর