রংপুরে নৈশ প্রহরীকে পিটিয়ে হত্যা করলো প্রভাবশালীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৯ আগস্ট, ২০২০
  • ৬১৫ বার পঠিত

রংপুরে নৈশ প্রহরীকে পিটিয়ে হত্যা করলো প্রভাবশালীরা

মো. সাইফুল্লাহ খাঁন,জেলাপ্রতিনিধি, রংপুর :
রংপুরের মিঠাপুকুরে দোকানে চুরির অভিযোগে তছলিম উদ্দিন (৫০) নামে এক বৃদ্ধ নৈশ প্রহরীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। পেটানোর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি আলোচনায় আসে।
নিহত তছলিম উদ্দিন মিঠাপুকুর উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের শীতলগাড়ী গ্রামের মৃত নিজাম উদ্দিনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শঠিবাড়ি হাটের গালামাল পট্টিতে নৈশ প্রহরী হিসেবে বাজার দেখাশুনা করতেন।
শনিবার (৮ আগস্ট) ভোররাতে দোকান চুরির অভিযোগে স্থানীয় প্রভাবশালীরা তাকে অমানবিক নির্যাতন করে। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় ওই নৈশ প্রহরীকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। একই দিন দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। চুরি ও নির্যাতনের ঘটনায় মিঠাপুকুর থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানা গেছে, শনিবার (৮ আগস্ট) ভোররাতে মিঠাপুকুর উপজেলার শঠিবাড়ীহাটে সাহেব আলীর দোকান থেকে মালামাল চুরির সময় স্থানীয়রা এক চোরকে আটক করেন। আটক চোর রমজান আলী (১৪) পার্শ্ববর্তী পীরগঞ্জ উপজেলার জীবনানন্দ গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে। তাকে মারধরের এক পর্যায়ে চুরির ঘটনার সঙ্গে নৈশ প্রহরী তসলিম উদ্দিনের জড়িত থাকার কথা জানায় ওই চোর।
বিক্ষুদ্ধ প্রভাবশালীরা হাটের দোকানের একটি খুঁটির সাথে নৈশ্য প্রহরী তছলিম ও চোর রমজান আলীর হাত-পা বেঁধে বেধড়ক মারধোর করলে তছলিম উদ্দিন গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ রমজান আলীকে আটক করে এবং গুরুত্বর আহত তসলিমকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হলেও সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
গতকাল রাতে নৈশ প্রহরী তসলিম উদ্দিনকে নির্যাতনের সেই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে এলাকাবাসী ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানান। একই সাথে আইন হাতে তুলে দিয়ে এভাবে পিটিয়ে হত্যায় ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শঠিবাড়ীতে রংপুর-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন তারা।

এব্যাপারে মিঠাপুকুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, দোকান চুরির ঘটনায় একটি এবং গণপিটুনিতে নিহতের ঘটনায় পৃথকভাবে দুটি মামলা হয়েছে। ইতোমধ্যে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দুটি মামলার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর