রাণীশংকৈলে নবম শ্রেনীর ছাত্র জহরুলে ঝালমুড়ি বিক্রি করে চলে সংসার ও পড়াশোনা খরচ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৬৮১ বার পঠিত

রাণীশংকৈলে নবম শ্রেনীর ছাত্র জহরুলে ঝালমুড়ি বিক্রি করে চলে সংসার ও পড়াশোনা খরচ

মাহাবুব আলম রাণীশংকৈল ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ।
ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে পৌর শহরের রংপুরিয়া মার্কেটের সাদেকুলের ছেলে জহরুল নবম শ্রেণীর ছাত্র ঝালমুড়ি বিক্রি করে চলে সংসার ও পড়াশোনা খরচ । (২৬ সেপ্টেম্বর রাণীশংকৈল সোনালী ব্যাংকের সামনে চোখ পড়ে যায় । ছোট একটি ছেলে ঝালমুড়ি বিক্রি করছে ।
তাকে প্রশ্ন করলে তুমি এত অল্প বয়সে ঝালমুড়ি বিক্রি কর কেন । বাবা নাই পড়াশোনা কর না। এমন প্রশ্নে জহরুল বলে উঠল জি আমি পড়ালেখা করি । উপজেলার দাখিল মাদরাসার নবম শ্রেণীর ছাত্র । আমার বাবা একজন গরিব অসহায় মানুষ । আমরা তিন ভাই আমি বড় । আমার বাবা ঘাস বিক্রি করে সংসার চালায় । আমার পড়াশোনা খরচ যোগাতে পারে না । তাই আমি ঝালমুড়ি বিক্রি করে পড়াশোনা খরচ যোগায় পাশাপাশি কিছু টাকা সংসারে দেয় ।


এ বিষয়ে জহরুলের বাবা সাদেকুলের সঙ্গে কথা বললে যে আপনি এত অল্প বয়সে ছেলেকে ফুটপাতে দোকান করান কেন । তিনি বলে উঠলো আমি ঘাস বিক্রি করে সংসার চালায়। ছেলের পড়াশোনা খরচ কি ভাবে দিব । আমার তিন সন্তান স্ত্রী সহ পরিবারের সংখ্যা পাঁচ জন । করোনা আসাতে সেই রকম কাজ কর্ম পায় না । তাই ছেলে সকালে কোচিং করে আর রাতে ফুটপাতে ঝালমুড়ি বিক্রি করে। এবং এই করোনা ভাইরাস আসার পর অনেক নেতার দ্বারে দ্বারে গেছি । সবাই দিব দিব বলে আশ্বাস দিছে কিন্তু আজ পর্যন্ত কেউ পাশে এসে দাঁড়ায় নি । দুঃখের কথা খুব কষ্টে চলে আমার সংসার ।
তাং_ ২৭/০৯/২০২০ ইং
মাহাবুব আলম
রাণীশংকৈল ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর