সকল রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী দের প্রতি আহবান সাংবাদিকদের উপর অতাচার নির্যাতন থেকে বিরত থাকুন।-মোঃ দেলোয়ার হোসেন,(সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা প্রেসক্লাব।)

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৩৬ বার পঠিত

 

সাংবাদিক হলো সকল রাজনৈতিক দলের জন্য আয়না, তাদের কাজ হলো যখন যেখানে যে অবস্থানে ভালো মন্দ ঘটনা ঘটবে তাই তুলে ধরবে।
১)) রাজনৈতিক দলের নেতারা নিজেকে বড় নেতা বানানোর জন্য সাংবাদিক এর প্রয়োজন।
২)) সরকারের ভালো মন্দ দুর্নীতি অপকর্মের চিত্র জাতির সামনে তুলে ধরতে প্রয়োজন।
৩)) সমাজের যেই কোন সমস্যা সমাধান এর লক্ষে অনেকেই কোথাও কোন সুবিচার না পেলে সাংবাদিকদের দারস্থ হয়।
৪)) পুলিশের ভালো কাজের প্রচার করার মাধ্যমই হলো সাংবাদিক।
৫)) প্রশাসনের কর্মকর্তারা তাদের সকল ধরনের সুনাম জনগণের কাছে পৌছানোর জন্য সাংবাদিক সম্মেলন করেন।
৬)) বিরোধী দলের নেতা কর্মীরা কোথাও সমস্যা পড়লে প্রথমে সাংবাদিক দের সহযোগিতা নেন।
৭)) রাস্ট্রের গ্রুরুত্বপূর্ন প্রোগ্রাম গুলো দেশী বিদেশি সকল স্তরের কাছে পৌছানোর জন্য সাংবাদিক প্রয়োজন।
৮)) সমাজে জোর জুলুম, চাঁদাবাজি, মাস্তানি, মাদকদ্রব্য ব্যবসায়ী,দখলবাজ, ভূমিদূশ্য, নারী ব্যবসায়ী অবৈধ ব্যবসায়ী এমন দুর্নীতি অপকর্মে যারা লিপ্ত তাদের কাছে সাংবাদিক মানে হলুদ সাংবাদিক, ভূয়া সাংবাদিক, অপ-সাংবাদিকতা, সবচেয়ে খারাপ লোক হয় সাংবাদিক।
৯)) একজন ভালো লোক সাংবাদিক ধারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এমন সংখ্যা কত খানিক পাওয়া যাবে?
১০)) সাংবাদিক দেশের উন্নয়ন কাজের দাহক ও বাহক, প্রতিটা ভালো কাজ জাতির কাছে পৌছানোর জন্য সাংবাদিক এর ভূমিকা অতুলনীয়। পাশাপাশি খারাপ কাজ গুলো প্রশাসনের সামনে তুলে ধরার একমাত্র মাধ্যম সাংবাদিক।
১১)) সর্বশেষ সাংবাদিক জাতির বিবেক,রাস্ট্রের উন্নয়নের ক্ষেত্রে জোরালো নিরপেক্ষ ভূমিকা রাখে, সাংবাদিক একটি জাতির জন্য আয়না স্বরুপ কাজ করে। সরকারী দল,বিরোধী দল তাদের কাছে দুটোই সমান। তাই সকল রাজনৈতিক দলের নেতাদেরকে বলছি। সাংবাদিক দের কে সহযোগিতা করুন,তাদের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করুন, আপনাদের থেকে সুদৃষ্টি আসা করছি।
এতগুনে গুনায়ীত হওয়ার পর আজ আমাদের সাংবাদিকরা সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত অত্যাচারিত নিপিড়ীত হচ্ছে। ২৮ শে অক্টোবর ২০২৩ আমাদের সাংবাদিকরা
পেশাগত দায়িত্বপালন করতে গিয়ে দৈনিক ইত্তেফাক, সময় টিভি, একুশে টেলিভিশন যমুনা টিভি ও কালবেলাসহ বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমের সহকর্মীরা দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত হয়েছেন, আহমেদ ফয়েজ, বাংলা ট্রিবিউনের প্রধান প্রতিবেদক সালমান তারেক শাকিল, ফটো সাংবাদিক সাজ্জাদ হোসেন ও নিজস্ব প্রতিবেদক জোবায়ের আহমেদ, দৈনিক কালবেলার প্রতিবেদক রাফসান জানি, আবু সালেহ মুসা, রবিউল ইসলাম রুবেল এবং তৌহিদুল ইসলাম তারেক, ঢাকা টাইমসের প্রতিবেদক সালেকিন তারিন, ব্রেকিং নিউজের ক্রাইম রিপোর্টার কাজী ইহসান বিন দিদার, দৈনিক ইনকিলাবের ফটোসাংবাদিক এফ এ মাসুম, দৈনিক ইত্তেফাকের মাল্টিমিডিয়ার রিপোর্টার তানভীর আহাম্মেদ, একুশে টিভির রিপোর্টার তৌহিদুর রহমান ও ক্যামেরা পারসন আরিফুর রহমান, দৈনিক দেশ রূপান্তর পত্রিকার সাংবাদিক আরিফুর রহমান রাব্বি, ইত্তেফাকের সাংবাদিক শেখ নাছের ও ফ্রিল্যান্সার মারুফ। DPC বাংলা TV এর বিশেষ প্রতিনিধি ইদি আমিন এ্যাপেলো, আঃ সালাম মিন্টু, মিজানুর রহমান, দৈনিক মুক্ত খবর পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার সুজন মাহমুদ, জেটিভির ফটো সাংবাদিক রুবিনা শেখ, খোকা, সিনিয়র রিপোর্টার রবি তাজ, দেশ রূপান্তর পত্রিকার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক আরিফুর রহমান রাব্বি, সংবাদ সংস্থা এএফপির প্রতিবেদক মুহাম্মদ আলী মাজেদ, শেয়ার বিজের প্রতিবেদক হামিদুর রহমান, ঢাকা টাইমসের প্রতিবেদক সিরাজুম সালেকীন, ব্রেকিং নিউজের অপরাধবিষয়ক প্রতিবেদক কাজী ইহসান বিন দিদার ও আহসান হাবিব সবুজ, একুশে টিভির প্রতিবেদক তৌহিদুর রহমান ও ক্যামেরা পারসন আরিফুর রহমান, দৈনিক ইত্তেফাকের মাল্টিমিডিয়ার রিপোর্টার তানভীর আহাম্মেদ ও শেখ নাসির, দৈনিক ইনকিলাবের ফটোসাংবাদিক এফ এ মাসুম, গ্রীন টিভির বিশেষ প্রতিনিধি রুদ্র সাইফুল্লাহ ও ক্যামেরাম্যান আরজু, ভোরের কাগজের ফটো সাংবাদিক মাসুদ পারভেজ আনিস, নুরুজ্জামান শাহাদাৎ ও ক্যামেরাপার্সন আরিফুল ইসলাম পনি, কালের কণ্ঠের জ্যেষ্ঠ ফটো সাংবাদিক শেখ হাসান ও ফটো সাংবাদিক লুৎফর রহমান, দ্য রিপোর্ট ডট লাইভের ভিডিও জার্নালিস্ট তাহির জামান প্রিয়, বাংলানিউজের জাফর আহমেদ এবং ফ্রিল্যান্সার মারুফ।
এদিকে, পেশাগত কাজে দায়িত্ব পালনের সময় সাংবাদিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে), বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্র্যাব)
ঢাকা প্রেসক্লাব, মিরপুর প্রেসক্লাব, ফেডারেশন অব বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অরগানাইজেশান, আর জি এফ, খিলগাঁও প্রেসক্লাব, এনপিএস, বাংলাদেশ সেন্ট্রাল ক্লাব, বাংলাদেশ প্রেসক্লাবসহ সাংবাদিক সংগঠনগুলো। পাশাপাশি এ ঘটনায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন সংগঠনগুলো।
ঢাকা প্রেসক্লাব এর সাধারণ সম্পাদক মো দেলোয়ার হোসেনসকল রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন সাংবাদিক দের কে সহযোগিতা করুন, তাদের কাজে সহযোগিতা করুন, তাদের বিপদে এগিয়ে আসুন, সাংবাদিক আপনাদের সকলের জন্য প্রয়োজনীয় ঔষুধ।
সাংবাদিকদের উপর অতাচার নির্যাতন, কুদৃষ্টি
অবমূল্যায়ন, থেকে বিরত থাকুন। সকল রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীকে অনুরোধ করছি যেকোনো আন্দোলন, যেকোনো কাজে সাংবাদিক দের কে সহযোগিতা করুন। দেশের উন্নয়নে সহযোগিতা করুন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর