সীতাকুণ্ডে পূর্বশত্রুতার জেরে এক স্কুল ছাত্রকে অপহরণের চেষ্টা

মোঃ শহিদুল ইসলাম সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৮ জুলাই, ২০২২
  • ৩৬৩ বার পঠিত

 

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার শেখেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র আরিফুল ইসলাম(১৮) নামের এক স্কুল ছাত্রকে পূর্বশত্রুতার জেরে অপহরণের চেষ্টা করা হয়েছে।গত বৃহস্পতিবার (৩০জুন) বিকাল আনুমানিক ৪টার দিকে স্কুল থেকে বাড়ী ফেরার পথে এঘটনা ঘটে। ঐ ছাত্রের বাড়ি ১নং সৈয়দপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড পূর্ব বাঁকখালী গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে বলে জানা যায়। এ ঘটনায় ঐ ছাত্রের পিতা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় গত ৩০/৬/২২ একটি অভিযোগ দায়ের করেন। উক্ত ঘটনার বিষয়ে ঐ ছাত্রের মা রিনা আক্তার বলেন, শেখেরহাট বাজার থেকে একটা ছেলে খবর নিয়ে আসে যে সন্ত্রাসীরা আমার ছেলে কে মারধর করছে তাৎক্ষিণ খবর পেয়ে আমার মেয়ে কে নিয়ে শেখেরহাট বাজারে গিয়ে দেখি ৫/৬ জন লোক আমার ছেলে কে মারধর করতেছে। এই পরিস্থিতি দেখে আমরা তাদের সামনে গিয়ে দেখি ২নং বারৈয়ারঢালা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পশ্চিম লালানগর গ্রামের আলাম ডাক্তারের বাড়ীর খুরশেদ আলমের ছেলে সাজেদুল করিম প্রকাশ সন্ত্রাসী শুভ এর নেতৃত্বে ৫/৬ জন তার সহযোগী নিয়ে আমার ছেলে আরিফ কে ব্যাপক মারধর করে একটি সিএনজি গাড়িতে করে জোর পূর্বক উঠিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। আমি আর আমার মেয়ে বাঁধা প্রদান করলে এক পর্যায়ে তারা আমাদের গায়ে পর্যন্ত হাত উঠায় ও খুব খারাপ বাসায় গালিগালাজ করে।আমার ছেলেকে বাঁচাতে একসময় তাদের সাথে ধস্তাধস্তি হয়। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে আমরা ওদের এই খারাপ পরিস্থিতি দেখে চিৎকার করলে আশেপাশের লোকজন চলে আসে। তারা লোকজনের উপস্থিতির আঁচ করতে পেরে এক পর্যায়ে তারা আমার ছেলে কে মারধর করে মাটিতে ফেলে রেখে সিএনজি নিয়ে পালিয়ে যায়।

উল্লেখ্যঃ সাজেদুল করিম প্রকাশ সন্ত্রাসী শুভ এর বড় ভাই জাহেদুল করিম শাকিল আমার মেয়ে ১৮কে ২০১৯ সাল থেকে কলেজে আসা যাওয়ার সময় ইভটিজিং ও উত্যক্ত করত।আমরা এবিষয়ে তার পরিবার ও স্থানীয় মেম্বার এবং চেয়ারম্যান কে অবহিত করি। কিন্তু তার পরিবারের লোক তাকে শাসন না করে উল্টা আমাদেরকে প্রাণ নাসের হুমকি দেয়। এমত্ববস্থায় তার পরিবার থেকে কোন সাড়া না পাওয়ায় আমরা নিরুপায় হয়ে আইনের আশ্রয় নিয়ে তার বড় ভাই শাকিলের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করি, বর্তমানে মামলা টা চলমান রয়েছে। এখন মামলা উঠিয়ে নেওয়ার জন্যে তারা আমাদের কে বিভিন্ন রকমের ভয়ভীতি এবং প্রাণনাশের হুমকি প্রধান করে আসছে। এখনও পর্যন্ত সন্ত্রাসীরা বিভিন্ন রকমের হুমকি দিচ্ছে যার কারণে আমার ছেলে প্রাইভেট পড়তে পর্যন্ত যাইতে পারতেছেনা তার সামনে পরীক্ষা। তারা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে, প্রশাসন এদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। এঘটনার বিষয়ে আমরা স্থানীয় ইউপি সদস্য ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ অত্র স্কুলের প্রধান শিক্ষক কে সহ অবহিত করেছি। এই অবস্থায় এলাকার এই শীর্ষ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যে আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় সররাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি এবং পুলিশ সুপারের দৃষ্টিআকর্ষণ করছি।এই সন্ত্রাসীদের কবল থেকে আমরা যেন রেহাই পায়। এদিকে স্থানীয় লোকজন জানায়, এই সন্ত্রাসীদের কাছে আমরা জিম্মী রয়েছে, এই সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে তাকেও মারধর করে। এরা মাদকের সাথেও জড়িত, তারা প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে এলাকায় মহড়া দেয়।এজন্যে এলাকার মানুষ ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে কোন কথা বলে না। এই যে স্কুল ছাত্র আরিফ কে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে বাজারের মধ্যে জনসম্মুখে দিনের বেলায় এত গুলো মানুষের সামনে মারধর করে অপহরণের চেষ্টা করে দেখেও কোন মানুষ এই সন্ত্রাসীদের ভয়ে মুখ খুলছেনা। এই ঘটনার কিছু দিন আগে এই চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা ২নং বারৈয়ারঢালা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড মৌলভীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বজল রহমান নামের এক ব্যক্তিকে ব্যাপক মারধর করে এর কোন বিচার না হওয়ায় যার কারণে এসব সন্ত্রাসী দিন দিন অপরাধ করে পার পেয়ে যাচ্ছে। আমরা এইসব চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। এ ঘটনার ব্যাপারে সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি(তদন্ত) সুমন বণিকের কাছে জানতে চাইলে তিনি দৈনিক নব দেশ বার্তাকে জানান, অভিযোগ টা পেয়েছি। উক্ত অভিযোগের তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এসআই আবদুল্লাহ আল নোমানকে তিনি বর্তমানে ছুটিতে থাকায় অভিযোগটির তদন্তের বিষয়ে কিছু বলা যাচ্ছে না। আমি ওনার সাথে কথা বলে বিষয়টা দেখছি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর