হরিণাকুণ্ডুতে স্কুলছাত্রীর শ্লীলতাহানির অপরাধে যুবকের যাবজ্জীবন

হরিণাকুণ্ডু ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃবাচ্চু মিয়া
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৯ মে, ২০২৩
  • ১৪৮ বার পঠিত

 

ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলার এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের দায়ে দুটি ধারায় আমিরুল ইসলাম (৩৩) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন ও ১৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে তিন লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ মে) সকালে ঝিনাইদহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোঃ মিজানুর রহমান এ দন্ডাদেশ প্রদান করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৮ সালের ১৫ মে হরিণাকুণ্ডু উপজেলার ভায়না গ্রামের ৭ম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে নিয়ে যায় একই গ্রামের আমিরুল ইসলাম। দুই দিন ঝিনাইদহ শহর ও হরিণাকুণ্ডুর সাতব্রীজ এলাকায় আটকে রেখে শ্লীলতাহানি করে। ১৭ মে ঝিনাইদহ শহরের কলাহাট এলাকায় তাকে ফেলে পালিয়ে যায় আমিরুল ইসলাম।

এ ঘটনায় ২৯ মে নির্যাতিতার মা বাদী হয়ে হরিণাকুণ্ডু থানায় আমিরুলকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে। পুলিশ তদন্ত শেষে ওই বছরের ২৯ জুলাই আমিরুলকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে।

দীর্ঘদিন বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে আদালত ওই মামলায় একটি ধারায় আমিরুলকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ২ লাখ টাকার জরিমানা এবং অপর একটি ধারায় ১৪ বছরের কারাদন্ড ও ১ লাখ টাকার জরিমানা করে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর