হরিণাকুণ্ডু ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃবাচ্চু মিয়া
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩ আগস্ট, ২০২৩
  • ৫৬ বার পঠিত

 

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সোর্স পরিচয়ে দিয়ে এলাকায় চাঁদাবাজি,সাধারণ মানুষের ভয়ভীতি জিম্মিসহ,মাদক সম্রাট,মাদক সেবনকারী শৈলকুপার মাইলমারী গ্রামের মৃত জব্বার সরদার এর ছেলে সোহেল এর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসী। এছাড়াও সোহেল এর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কার্যকলাপেরও অভিযোগ রয়েছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে সহেল পদমদি গ্রামের নিরীহ কৃষক খোকন নামে একজনকে মাদক ব্যবসায়ী বলে মাঠ থেকে মারধর করে। এছাড়া একই গ্রামের ভ্যানচালক কে মাদক দিয়ে ধরিয়ে দেওয়ার কথা বলে ১১০০ টাকা হাতিয়ে নেয়। এতে সোহেল এর অত্যাচারে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে।পরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা সোহেল কে নিয়ে অভিযানে যায়। এসময় এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে সোহেলকে মারধর করে।

মারধরের ভিডিও ধারণ করে সাংবাদিক শাহিদুজ্জামান বাবু, আশরাফুল, রাজীব,শিহাবসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা। এতে সোহেল ক্ষুব্ধ হয়ে পরের দিন বিকেলে হরিণাকুন্ডু চারপাড়া এলাকা থেকে দেশীয় অস্ত্র দা নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্য শহিদুজ্জামান বাবুর উপর হামলা করে। এসময় আশপাশের লোক হাতে থাকা দা কেড়ে নিলেও কিল,ঘুষি লাথি মারতে থাকে। সাংবাদিক বাবু ভায়ের কানে চরম আঘাত লাগে। এছাড়া একটা দাঁত ভেঙে যায় । বর্তমানে সাংবাদিক বাবু শৈলকূপা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

এবিষয়ে শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, সাংবাদিক এর উপর হামলার ঘটনা শুনেছি। লিখিত অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এঘটনায় ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির পক্ষ থেকে নিন্দা জানানো হয় ।সেই সাথে মাদক ব্যবসায়ী, মাদক সেবনকারী চাঁদাবাজ সোহেল কে গ্রেফতারের দাবী জানাই সাংবাদিকবৃন্দ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর