গাজীপুরে কালীগঞ্জে ৮দিনে ধর্ষণ ও ধর্ষণের চেষ্টার শিকার ৩ শিশু।

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৭০৪ বার পঠিত

গাজীপুরে কালীগঞ্জে ৮দিনে ধর্ষণ ও ধর্ষণের চেষ্টার শিকার ৩ শিশু।


মোঃ আজগর পাঠান।
কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরসাদী ইউনিয়নের মধ্য খলাপাড়া গ্রামে তৃতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে একই এলাকার মো. আরজু শেখের ছেলে মো. সুজন শেখ নামে এক লম্পট। এ নিয়ে উপজেলায় ৮দিনে ধর্ষণ ও ধর্ষণের চেষ্টার শিকার ৩ শিশু।


স্থাণীয় ও থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বাহাদুরসাদী ইউনিয়নের মধ্য খলাপাড়া গ্রামে তৃতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রী দুপুর আনুমানিক ২টার দিকে বাড়ীর পার্শ্বে থেকে শুকনো কাপড় আনতে গেলে প্রতিবেশি মো. আরজু শেখের ছেলে মো. সুজন শেখ (৩০) তাকে নজরুল ইসলামের পরিত্যক্ত ঘরে ডেকে নিয়ে যায়। পরে সুজন তাকে জোরপূর্বক আটকে রেখে ধর্ষণ করে। তার ডাক চিৎকারে স্কুল ছাত্রীর বাবাসহ স্থাণীয়রা এগিয়ে আসলে লম্পট সুজন দৌড়ে পালিয়ে যায়।


এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর বাবা কালীগঞ্জ থানায় ধর্ষণের একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সংবাদ লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


স্কুল ছাত্রীর বাবা বলেন, আমি বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি। তাকে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাই।


এ বিষয়ে কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মিজানুল হক জানান, এ সংক্রান্ত বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


এ ছাড়াও গত ২০ ডিসেম্ভর একই গ্রামে স্কুলের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে দোকানের ভিতরে ডেকে নিয়ে জাবের নামে এক লম্পট ধর্ষণ করেছে। অন্যদিকে একই দিনে উপজেলার বক্তারপুর ইউনিয়নের খৈকড়া গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী প্রতিবেশি মৃত মিলনের ছেলে চাচা আব্দুল মান্নান কর্তৃক ধর্ষণের চেষ্টার শিকার হয়েছে। এ দু’ঘটনায় থানা পুলিশ জাবের ও মান্নানকে আটক করে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর