উপবৃত্তির নামে ছাত্র ছাত্রীদের নিকট থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ

হরিণাকুণ্ডু ( ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১১ অক্টোবর, ২০২১
  • ৫৭২ বার পঠিত

ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলার ৪ নং দৌলতপুর ইউনিয়নের সোনাতনপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। প্রতি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১ হাজার থেকে ১৭’শত টাকা করে আদায় করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। জানা যায় হরিনাকুন্ডু উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের সোনাতনপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও অফিস সহকারী মোঃ লুকমান হোসেন উপবৃত্তিতে নাম অন্তর্ভুক্ত করার নামে শিক্ষার্থীদের কাছে উৎকোচ নিচ্ছেন। আর টাকা না দিলে উপবৃত্তির তালিকায় নাম দেয়া হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন।

 

নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করেই এসব টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে জানান শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা। ৪ অক্টোবর সোমবার সোনাতনপুর গ্রামের সুবাহান মন্ডল দৈনিক দেশের কন্ঠ প্রতিনিধিকে জানান,আমার মেয়ে মোছাঃ অর্পা খাতুন সে নবম শ্রেণিতে পড়ে, অফিস সহকারী লুকমান হোসেন আমার নিজ বাসায় এসে উপবৃত্তির কথা বলে এক হাজার টাকা নেয়,কিন্তু আমার মেয়ে আজও পর্যন্ত উপবৃত্তির কেনো টাকা পাইনি। আমি এর শুষ্ঠ্যু বিচার চাই। কিন্তু এখানেই শেষ নয় ছাড় পায়নি মৃত মহিউদ্দীনের মেয়ে সপ্তম শ্রেণী পড়ুয়া ছাত্রী শাবনাজ খাতুন,তার মা আলিয়া খাতুন জানান, অফিস সহকারী লুকমান হোসেন আমার নিজ বাসায় এসে বলে,চাচী আপনার মেয়ে সাবনাজ খাতুনের তো বিয়ে হয়ে গেছে,আপনার মেয়ে সাবনাজ উপবৃত্তি পাবে।

 

সাবনাজ খাতুনের মা আলিয়া খাতুন বলে হ্যা হয়েছে আজ ৫ বছর একটা বাচ্চাও হয়ে গেছে,তা আমি উপবৃত্তি কথা শুনে ১ হাজার টাকা দিলাম,টাকা দিয়ে বললাম সত্যিই কি পাবে বললো হ্যা পাবে এবং সঙ্গে সঙ্গে আমার কাছ থেকে মোবাইল ফোন নিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলে দিলো নিলো ১”শত করে টাকা। এব্যাপারে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক শাহাবুদ্দিন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমরা শুধুমাত্র শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সেশন চার্জ নিয়েছি,উপবৃত্তির জন্য কারো কাছ থেকে কোনও টাকা পয়সা নেই নি।

 

হরিনাকুন্ডু ম্যধমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ ফজলুর হক বলেন এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায় নাই,অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। হরিণাকুণ্ডু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দা নাফিস সুলতানা বলেন, যদি নিয়ম বহিঃভুত ভাবে বাচ্চাদের নিকট থেকে কোনও প্রকার টাকা নেয়া হয় তাহলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর