কালীগঞ্জে গ্রামীণ ব্যাংকের জোরপূর্বক কিস্তি আদায়ের অভিযোগ।আজগর পাঠান।

কালিগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি।
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৬ মে, ২০২১
  • ৫৭৭ বার পঠিত

গাজীপুরের কালীগঞ্জে গ্রামীণ ব্যাংক সরকারের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। যেখানে সরকার ঘোষনা দিয়েছেন করোনাকালীন সময়ে কোন প্রকার কিস্তি আদায় করা যাবেনা। কিন্ত তারা বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে কাজ করছেন । করোনা মহামারী চলাকালীন সময় সাধারন মানুষের কাজকর্ম করতে পারছেনা আর সেখানে গ্রামীণ ব্যাংক কিস্তি আদায়ে ব্যস্ত রয়েছে। আজ প্রতিটি সদস্যের বাড়ি বাড়ি গিয়ে জোর পূর্বক চাপ দিয়ে কিস্তি আদায় করার অভিযোগ উঠেছে, গ্রামীন ব্যাংকের মাঠ কর্মকর্তা ও ম্যানেজারের উপর। কিস্তি না দিতে পারায় অনেকের সঞ্চয় থেকে কর্তন করা হয়েছে কিস্তি টাকা।
আজ রবিবার ১৬ এপ্রিল সকালে কালীগঞ্জ পৌরসভা ৬ নং ওয়াড ১৭ নম্বর কেন্দ্রে মাঠ কর্মকর্তা ইসহাক কিস্তি নিতে আসেন। এ সময় অনেকে কিস্তি দিতে না পারায় কেন্দ্রে আসেন নাই। পরে তাদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে হুমকি দিয়েছে বলে জানা গেছে। পরে সন্ধ্যায় প্রতিটি সদস্যের বাড়িতে গিয়ে স্থানীয় ব্যবস্থাপকসহ তাদের সঞ্চয় থেকে জোর করে কিস্তি ট্রানস্ফার করা হয়। যাবার সময় ম্যানেজার এই বলে হুমকি দিয়ে যায় দেশে করোনা থাকুক আর যা-ই থাকুক কিস্তি দিতে হবে। এটা আমাদের গ্রামীণ ব্যাংকের নিয়ম।

এবিষয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শিবলী সাদিকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন গ্রামীণ ব্যাংক এমনটা করতে পারেনা। গ্রামীণ ব্যাংকের কর্মকর্তার সাথে কথা বলে বিষয়টা তদন্ত করে দেখবো।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর