কুষ্টিয়া মহাসড়কে ৯ ঘন্টার ব্যবধানে ঝরলো ৬টি তাজা প্রাণ

 কে এম শাহীন রেজা, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি।।
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২৬৫ বার পঠিত

কুষ্টিয়া মহাসড়কের বটতৈল দক্ষিণপাড়া নামক স্থানে মন্ডল হোটেলের সামনে সম্মুখে আজ ১০ জানুয়ারি ভোর সাড়ে ৫ টার সময় দানবরুপী বালিভর্তি ড্রাম ট্রাকের তলায় পিষ্ট করে দিল ৪ জন শ্রমিকের প্রাণ। নিহতদের মধ্যে ১ পুরুষ ও ৩ জন মহিলা রয়েছে। নিহতরা হলেন, সদর উপজেলার স্বস্তিপুর এলাকার হজেল হোসেনের ছেলে ভ্যানচালক মুক্তার হোসেন (৫০), একই এলাকার আজিজুল হকের স্ত্রী জেসমিন (৩০), আলামপুর হালদারপাড়া এলাকার ভাদু মোল্লার মেয়ে রোজিনা খাতুন (২৭) এবং হলদারপাড়ার মনোরঞ্জনের স্ত্রী স্বপ্না রানী (৪৫)।

 

 

এ ঘটনায় আহত বালিয়াপাড়া গ্রামের মিঠুন বিশ্বাসের স্ত্রী তহমিনা খাতুন আশঙ্কাজনক অবস্থায় কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বটতৈল দক্ষিণপাড়া এলাকায় মন্ডল হোটেলের সামনে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ সড়কে ঝিনাইদহগামী দ্রুতগতির একটি ট্রাক বিপরীতগামী একটি যাত্রীবাহী ভ্যানকে চাপা দেয়।

 

 

 

এতে ঘটনাস্থলেই চারজনের মৃত্যু হয়। কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইদ্রিস আলী জানান, কুষ্টিয়া থেকে ছেড়ে আসা ঝিনাইদহগামী দ্রুতগতির একটি ট্রাক যাত্রীবাহী ভ্যানকে ধাক্কা দেয়।

 

এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন। পরে মরদেহ চারটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়। ট্রাকটিকে জব্দ করা হলেও চালক পালিয়ে গেছে। অন্যদিকে গত ৯ তারিখ রবিবার রাত সাড়ে ৯ টার সময় কুষ্টিয়া দৌলতপুরের তারাগুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনের সড়কের উপর দ্রুতগামী ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন।

 

 

এ সময় বিক্ষুব্ধ জনতা উক্ত ড্রাম ট্রাকটি আগুনে পুড়িয়ে দেয়। দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জাবীদ হাসান জানান, দুই মোটরসাইকেল আরোহীর মৃতদেহ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ট্রাকের চালক পলাতক। তাকে ধরতে চেষ্টা চলছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর