কুষ্টিয়ার উন্নয়নের রূপকার এমপি মাহবুব-উল-আলম হানিফ

কে এম শাহিন রেজা, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৪৪ বার পঠিত

 

 

এক সময়ের অবহেলিত পদ্মা-গড়াই বিধৌত বিস্তীর্ণ এক জনপদ ও শিল্প, সাহিত্য এবং সংস্কৃতির রাজধানী হিসেবে পরিচিত এ কুষ্টিয়া জেলা। বিগত বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোট সরকার আমলে কুষ্টিয়া ছিল উন্নয়নের ছোঁয়া বঞ্চিত এক জনপদ। বলা যেতে পারে, বিমাতাসুলভ নির্মম আচরণের শিকার হয় এই জেলা। কিন্তু অবহেলিত কুষ্টিয়া জনপদের মানুষের কাছে আশীর্বাদ হয়ে এসেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। দলের সভাপতি ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ়চেতা এবং দূরদর্শী সিদ্ধান্তে পাল্টে যেতে থাকে এখনকার দৃশ্যপট। এ সময় কুষ্টিয়া-৩ (কুষ্টিয়া সদর) আসনের এমপি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক উন্নয়নের রূপকারখ্যাত মাহবুব-উল-আলম হানিফের তত্ত্বাবধানে জেলায় ব্যাপক উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এসব উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতু, কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ, শহর বাইপাস সড়ক, সুইমিংপুল কমপ্লেক্স, মেডিক্যাল কলেজের পূর্ব পাশে তৈরি করা হচ্ছে একটি আইটি পার্ক, খুলনা বিভাগের প্রথম সারীর শেখ কামাল স্টেডিয়াম, কুষ্টিয়া শহরের বাইরে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের আরেকটি বৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্প কুমারখালী উপজেলার শহীদ গোলাম কিবরিয়া সেতু গড়াই সেতু যা এখন দৃশ্যমান। কুষ্টিয়ায় ফোর লেন সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের কাজ চলছে, গড়াই নদীর তীনে তৈরী হয়েছে জেলা পরিষদের ইকোপার্ক, নবনির্মিত কুষ্টিয়া চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বহুতল ভবন, খুলনা বিভাগের মধ্যে আকর্ষণীয় ও আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত ৬তলা বিশিষ্ট একটি সার্কিট হাউস, জেলা পরিষদ ভবন, মডেল মসজিদ এবং জেলা শিল্পকলা একাডেমির অত্যাধুনিক কমপ্লেক্স ভবন নির্মণের মতো গুরুত্বপূর্ণ অনেক কাজ। এগুলোর নির্মান কাজ সম্পন্ন করেছেন মাহবুব-উল-আলম হানিফ।
কুষ্টিয়ার উন্নয়ন সম্পর্কে জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে যে উন্নয়নের ধারা চলছে, তারই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক ইচ্ছায় কুষ্টিয়া-৩ আসনের এমপি আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফের নেতৃত্বে গত ৪২ বছর ধরে স্থানীয় জনগণের প্রত্যাশিত উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলোর বেশিরভাগই এখন দৃশ্যমান হয়েছে। কিছু প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে।
নিজ জেলার উন্নয়ন কাজ সম্পর্কে কুষ্টিয়ার উন্নয়নের রূপকার আখ্যায়িত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের এমপি মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, দেশ স্বাধীনের পর বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেই কুষ্টিয়ায় ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। জেলাবাসীর দীর্ঘ দিনের প্রত্যাশাগুলো একে একে বাস্তাবায়িত হয়েছে। হরিপুর সংযোগ সেতু, বাইপাস সড়ক, মেডিক্যাল কলেজ, আধুনিক সুইমিংপুল কমপ্লেক্স নির্মাণসহ এই জেলার বহু স্কুল-কলেজ, মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মাণ করা হয়েছে। ফোর লেনের কাজ প্রায় শেষের দিকে। তাছাড়া সড়ক নির্মাণ ও সংস্কার কাজও করা হয়েছে। হানিফ বলেন, আমাদের প্রত্যেকের পরিশ্রম ও আন্তরিকতার কারণে সফলতার সঙ্গে এগিয়ে যাচ্ছে জেলার প্রতিটি উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ। তিনি আরও বলেন, এ দেশে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের কোন বিকল্প নেই। এই দেশের উন্নয়ন কীভাবে করতে হয়, এ দেশের মানুষের ভাগ্য কিভাবে পরিবর্তন করতে হয় তা কেবল শেখ হাসিনা সরকারই জানে। এছাড়া কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল এর একাংশের আউটডোর চালু চলেছে এখনো কিছু নির্মাণ প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে।
উন্নয়ন নিয়ে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ সদর উদ্দিন খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক ইচ্ছা আর কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের এমপি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফের আন্তরিক প্রচেষ্টায় বর্তমান সরকারের সময় কুষ্টিয়ার বিভিন্ন সেক্টরে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। স্বাধীনতার পূর্বে ও পরে দীর্ঘকাল এই জেলা ছিল উন্নয়ন বঞ্চিত। কুষ্টিয়ার পিছিয়ে পড়া এই উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে প্রাণান্তকর চেষ্টা করছেন জেলার সকল উন্নয়ন ও অগ্রগতির মূর্ত প্রতীক উন্নয়নের রূপকার জননেতা মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি। তারই তত্ত্বাবধানে ইতোমধ্যেই কুষ্টিয়াবাসীর দীর্ঘ দিনের প্রাণের দাবিগুলো একে একে বাস্তবায়ন হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর