কুষ্টিয়ার টাইগার আলম ও কালা সাইফুলের মাদকের ভয়াল থাবায় ধ্বংসের পথে যুব সমাজ

কে এম শাহীন রেজা কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি।।
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ১০৭ বার পঠিত

কুষ্টিয়ার মাদক সম্রাট আলম ওরফে টাইগার আলম ও সাইফুল ওরফে কালা সাইফুল বেপরোয়া মাদক ব্যবসা এখন স্বপ্নের মেডিকেল কলেজের ভিতরে। একদিকে তার মাদদের ফাঁদে জড়িয়ে পড়েছে মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা অন্যদিকে এলাকার যুব সমাজও আজ ধ্বংসের মুখে ধাবিত হচ্ছে। প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার মাদক যুবসমাজের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়ে যুব সমাজকে ধ্বংস করছে বলে অভিযোগ তুলেছে শহরতলীর লাহিনী বটতলার সূশীল সমাজ। আলম কুষ্টিয়া শহরতলী লাহিনী বটতলা এলাকার মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে। তিনি বর্তমানে টাইগার আলম নামে পরিচিত। একই এলাকার সমেশ ঘরামির ছেলে সাইফুল ওরফে কালা সাইফুল দিন রাত তাদের বাড়িতে ও লাহিনী বটতলা এলাকাসহ কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ এলাকার নবনির্মিত ভবনের মধ্যে তাদের রমরমা মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। উল্লেখ্য যে, এলাকার ছোট-ছোট ছেলেদের দিয়ে আলম ও সাইফুল ওরফে কালা সাইফুল তার এই মাদক ব্যবসা করাচ্ছে বলে তথ্য পাওয়া গেছে।
প্রতিদিন লাখ-লাখ টাকার ফেনসিডিল ইয়াবা ও গাঁজা অবাধে বিক্রি অব্যাহত রেখেছে। এলাকাবাসী তাদের মাদক ব্যবসা বন্ধের চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হয়েছে বলে জানা গেছে। মাদক সম্রাট আলমের নেটওয়ার্ক এতই শক্তিশালী যে পাইকারি মূল্যে বিভিন্ন স্থানে মাদক সরবরাহ করে যাচ্ছে। এতে করে শুধু লাহিনী নয় গোটা কুষ্টিয়ায় তার মাদক পৌছে যাচ্ছে। উঠতি বয়সী ছেলেরা তার এই মাদকের কারণেই ধ্বংসের দিকে ধাবিত হচ্ছে বলে ভ’ক্তভুগী অভিভাবকেরা প্রতিবেদককে জানান। কুষ্টিয়া মডেল থানা সূত্রে জানা যায়, আলম ওরফে টাইগার আলম ও কালা সাইফুলের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মাদক মামলাও রয়েছে। এই দুই মাদক ব্যবসায়ী বলেন, আমরা প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই ব্যবসা করি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর