কুড়িগ্রামে তিস্তা-ধরলা ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি-বৃদ্ধি,বন্যার আশঙ্কা

নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১
  • ২১৬ বার পঠিত

 

উজান থেকে নেমে আসা পানি ও ভারি বর্ষণের কারণে কুড়িগ্রামের তিস্তা, ধরলা ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি গত দুদিন যাবত বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। এ জেলাসহ এর উজানে ভারতের বিভিন্ন অংশে ভারি বৃষ্টিপাত হওয়ায় জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে ধরলা ও ব্রহ্মপুত্র নদ অববাহিকায় স্বল্প মেয়াদি বন্যার আশঙ্কা করছে কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)।

এ ব্যাপারে পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলাম নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, যেভাবে নদ-নদীর পানি বাড়ছে তাতে খুব অল্প সময়েই বন্যার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে ব্রহ্মপুত্র ও ধরলার পানি বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে। ফলে এই দুই নদ-নদী অববাহিকায় একটি বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
এদিকে, স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় তিস্তা নদীর পানি কাউনিয়া পয়েন্টে কিছুটা কমলেও ধরলা ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি সবকটি পয়েন্টে বাড়তে শুরু করেছে। জেলার সদরের সেতু পয়েন্টে ধরলা নদীর পানি গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯ সেন্টিমিটার ও একই সময়ে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি নুনখাওয়া পয়েন্টে ৩০ সেন্টিমিটার এবং চিলমারী পয়েন্টে ২৬ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে।

অন্যদিকে, আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার রাজারহাট উপজেলা কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৮০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আগামী এক সপ্তাহ ভারি বৃষ্টিপাত চলমান থাকতে পারে বলেও জানান তিনি। এদিকে বন্যার আশঙ্কায় নদনদী তীরের মানুষ নিতে শুরু করেছেন নানা প্রস্তুতি। তাদের ঘরে শুকনো খাবার রাখাসহ যাতায়াতের জন্য নিচ্ছেন নৌকা তৈরি ও মেরামতের প্রস্তুতি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর