কুড়িগ্রামে প্রেমের টানে যা করলেন কলেজছাত্রী

 নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৯৪ বার পঠিত

কুড়িগ্রাম জেলার সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নে ভালোবাসার টানে এক কলেজছাত্রী (২০) হিন্দুধর্ম ত্যাগ করে এরশাদুল হক (২৫) নামের মুসলিম এক যুবককে বিয়ে করেছেন। বর্তমানে ওই ছাত্রীর নাম জান্নাতুল ফেরদৌসী রজনী। ওই ছাত্রী যাত্রাপুর ইউনিয়নের ঘনেশ্যামপুর গ্রামের দিলীপ কুমার সেনের মেয়ে।

এদিকে ছেলে একই ইউনিয়নের দোয়ালীপাড়া গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে। জানা যায়,দিশা রানী সেন ধর্মান্তরিত হয়ে এফিডেভিটে উল্লেখ করেছেন- জেনে বুঝে ও স্বজ্ঞানে তিনি হিন্দুধর্ম ত্যাগ করে ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে মুসলিম হয়েছেন। পরে গত ২৯ মার্চ কোর্টে ঘোষণা দিয়ে ধর্মান্তরিত হন এবং একই দিনে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে মুসলিম ছেলের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

স্থানীয় ইমামের হাত ধরে পবিত্র কালেমা পড়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন ও দুই লাখ টাকা দেনমোহরের মাধ্যমে তাদের বিয়ে হয়েছে। মোবাইল ফোনে এরশাদুল হক বলেন, দিশা রানী সেনের (জান্নাতুল ফেরদৌস রজনী) সঙ্গে গত ৭-৮ বছর আগে পরিচয় হয়। এরপর থেকেই অনেকরবার আমাদের ইসলামের বিষয়ে জানতে চায় সে। এভাবেই আস্তে আস্তে আমার দুজনের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। এরশাদুল হক আরও বলেন, সে ইসলামকে ভালোবেসেই মূলত হিন্দুধর্ম ত্যাগ করেছে। সে এখন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ছে রোজা রাখছে। আমিও পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ছি রোজা রাখছি।

দোয়া করবেন আমরা দুজন যেন সারাজীবন একসঙ্গে থাকতে পারি ও ইসলামিক বিধান মানতে পারি। সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়নের (ইউপি) চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী সরকার ওই কলেজছাত্রী হিন্দুধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম হয়ে বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর