কুড়িগ্রামে মাঘের ঝড়ো হাওয়ায় বিপর্যস্ত জনজীবন

নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ১২৯ বার পঠিত

কুড়িগ্রামে মাঘের ঝড়ো হাওয়ায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। ফলে দুর্ভোগের সাথে সাথে স্থবিরতা নেমে এসেছে জনজীবনে। গত কয়েকদিনের টানা শৈত্য বায়ুর সাথে শুক্রবার মাঘের আকাশে দেখা যায়নি সূর্যের মুখ। সূর্যহীন মাঘের আকাশটা ছিল জলজ মেঘে ঢাকা। সকাল থেকে কিছুক্ষণ ধরে চলে মেঘের গর্জন।

একসময় মেঘের গর্জনসহ ঝড়ো বৃষ্টি। তারপর সে মেঘ বৃষ্টি হয়ে ঝরে। বৃষ্টির সাথে ভেজা বাতাসে সময়ের সাথে ঠাণ্ডা যেন জেঁকে বসে জনজীবনে। দুপুরের পরে বাতাসের তীব্রতা বাড়ে। থেমে থেমে এলোমেলো দমকা হাওয়ায় বইতে থাকে।

 

এ অবস্থায় দুর্ভোগে পড়েছে শিশু, বৃদ্ধ, নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া চরাঞ্চলের মানুষ। উপজেলার পূর্ব সাঞ্জুয়ারভিটার মিশুক চালক আব্দুর রশিদ, মমিনুল হক জানান, অর্ধেক দিন ভিজে মিশুক চালিয়ে বাড়িতে ফিরে শরীরে অতিরিক্ত গরম কাপড় জড়িয়েও ঠাণ্ডা যাচ্ছে না। তবে বন্ধের দিন হওয়ায় বেশিরভাগ মানুষ বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের না হওয়ায় রাস্তা-ঘাট, হাট-বাজার ছিল অনেকটা ফাকা।

 

ঠাণ্ডায় জবুথবু হয়েই বাড়িতে বসে দিন কাটিয়েছেন তারা। সবমিলিয়ে মাঘের বৃষ্টি-বাতাসে নেমে এসেছে স্থবিরতা। কচাকাটার আজিবর রহমান বলেন, যে ঠাণ্ডা বাতাস তাতে কাজকর্ম করা তো দুরের কথা- কাপড় চোপড় গায় দিয়ে বাড়িতে থাকা যায় না ঠাণ্ডায়! এ অবস্থা চলতে থাকলে আবাদ কৃষি যে ক্যামনে করমো আল্লায় জানে।এমতাবস্থায় ঠাণ্ডায় স্থবিরতা সেরে স্বস্তি ফিরে আসুক জনজীবনে এমন প্রত্যাশা সকলের।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর