গংগাচড়ায় তামাক উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে বিড়ি সিগারেট কোম্পানির নানা উদ্যোগ গ্রহন।

মো: মজমুল হক গংগাচড়া ( রংপুর ) প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৬ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৫২১ বার পঠিত

রংপুরের গংগাচড়ায় তামাক উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে বিড়ি সিগারেট কোম্পানি গুলো নানা উদ্যোগ গ্রহন করেছে। রংপুর তামাক এর জন্য বিখ্যাত আর রংপুরের গংগাচড়ায় ব্যাপক হারে উৎপাদন হতো এই তামাক এটা সবার জানা কিন্তুু তামাক চাষ ধীরে ধীরে অলাভজনক হওয়ায় এখানকার কৃষক দিনে দিনে তামাক চাষ কমায় দিয়ে অন্যান্য ফসল যেমন ভূট্টা গম বোরো ধান ইত্যাদি চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছিল।

কৃষকের উৎপাদিত তামাক বড় বড় কোম্পানি,আকিজ ট্যোবাকো,আবুল
টোব্যাকো,বি টি সি টোব্যাকো নাসির টোব্যাকো কোম্পানি ছাড়াও ছোট ছোট আরও অনেক বিড়ি সিগারেট ফ্যাক্টরী ক্রয় করে থাকেন। কিন্তুু ধীরে ধীরে তামাক উৎপাদন কমায় এসব কোম্পানি চাষিদের মাঝে তামাকের আগাম মুল্য নির্ধারণ বীজ বিতরন ও তামাক ক্রয় কার্ড দেওয়া সহ নানা উদ্যোগ গ্রহন করেছে।

এ বিষয়ে গংগাচড়ার কোলকোন্দ ইউনিয়নের বেশ কিছু কৃষক আমাদের প্রতিবেদক কে জানান ধীরে ধীরে আমরা তামাক চাষ কমায় দিয়ে ভূট্রা,বোরো ধান ও অন্যান্য ফসল উৎপাদন করছিলাম কিন্তু বর্তমান তামাক চাষ করলে বেশি লাভবান হওয়া যায়। অন্যান্য কৃষকের ন্যায় কোলকোন্দ আলেকিশামত গ্রামের কৃষক রফিকুল ইসলাম (২৮)জানান আমি গত বছর বি টি সি কোম্পানির তামাক ক্রয় কার্ড করে তামাক উৎপাদন করে লাভজনক হয়েছি তাই এবার আর ও বেশি করে তামাক লাগাবো। এখানকার কৃষক নভেম্বর ডিসেম্বর মাসে তামাকের চাষ করে থাকে তাই এটাকে মাথায় রেখে কোম্পানি গুলো বিভিন্ন ভাবে তৎপরতা শুরু করেছেন।

বি টি সি কোম্পানির প্রতিনিধি সুজন জানান আমাদের কোম্পানির তামাকের প্রয়োজনীয়তার কথা মাথায় রেখে আমরা কৃষকদের মাঝে অগ্রিম বিক্রয় কার্ড বীজ বিতরণ করছি যাতে কৃষকরা উৎসাহীত হয়ে তামাক উৎপাদন করে আমাদের কোম্পানিতে বিক্রি করে। এ বছর গংগাচড়ায় প্রায় ১০০০ কৃষকের মাঝে এ কার্ড বিতরন করা হবে।

স্থানীয় সচেতন জনগন মনে করেন সরকার যেখানে ২০৪০ সালের মধ্যে তামাক মুক্ত বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় গ্রহন করেছেন সেখানে কোম্পানি গুলোর তৎপরতায় কতটুকু সফল হবে তা বিবেচ্য বিষয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর