গাংনীতে এবি কেমিক্যাল কারখানায় অভিযানে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও পণ্য জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২৯৯ বার পঠিত

মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কের মেহেরপুর জেলার গাংনী উপজেলার পশ্চিম মালসাদহ এলাকায় এবি কেমিক্যাল এর কারখানায় ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও বিপুল পরিমাণ পণ্য জব্দ করেছে। আজ মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি), দুপুর ১ টা ৩০ মিনিটের দিকে মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আমিনা মাশতুরা এর নেতৃত্বে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি’র) ওসি জুলফিকার আলীসহ এস আই অজয় কুমার কুন্ডু, এস আই সুলতান মাহমুদ, এ এস আই হেলাল উদ্দিন ও এ এস আই আহসান হাবিব এবং সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে এ অভিযান পরিচালনা করে।

 

 

এবি কেমিক্যালের স্বত্ত্বাধিকার জেলার গাংনী উপজেলার গোপালনগর গ্রামের আসাদুল ইসলাম (৩৫) বিএসটিআই থেকে একটি পণ্যের অনুমোদন নিয়ে তৈরী করছেন ১৬টি পণ্য। এ অপরাধে গাংনী-কুষ্টিয়া সড়কের পশ্চিম মালসাদহ গ্রামে এবি কেমিক্যাল ফ্যাক্টরীতে অভিযান পরিচালনা করে মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালত।

 

 

ভোক্তা অধিকার আইনে কারখানার স্বত্ত্বাধিকার আসাদুল ইসলাম কে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে এক মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে। এবি কেমিক্যাল এর স্বত্ত্বাধিকার আসাদুল ইসলাম গাংনী উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের গোপালনগর গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে বলে জানা যায়। অভিযান সুত্রে জানা গেছে, আসাদুল ইসলামের এবি কেমিক্যাল ফ্যাক্টরীতে ডিটারজেন্ট পাউডার তৈরীর জন্য বিএসটিআই অনুমোদন রয়েছে।

 

 

এর আড়ালে তিনি তৈরী করছেন টয়লেট ক্লিনার, গ্লাস ক্লিনার, ডিস ওয়াশ ও ফ্লোর ওয়াশসহ বিভিন্ন প্রকার ক্লিনিং পণ্য। মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কারখানায় অভিযান পরিচালনা করে। এসময় মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার মাসতুরা আমিনা কারখানা মালিককে ভোক্তা অধিকার আইনে দোষী সাব্যস্ত করে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে এক মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন। সেই সাথে পণ্য জব্দ করা হয়।

 

 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসতুরা আমিনা বলেন, অনুমোদনবিহীন উৎপাদিত পণ্য জব্দ করা হয়েছে। কারখানা মালিক অনুমোদন নিবেন বলে আর্জি জানিয়েছেন। পুনরায় এ অপরাধ সংঘঠিত হলে তাকে কঠোর সাজা দেওয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর