গাংনীতে জোরপূর্বক জমি দখল করে ঘর নির্মাণে নিষেধ করায় মারপিট ও বিবস্ত্রের বিচার এবং জমি দখলমুক্ত করতে সংবাদ সম্মেলন।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৩০ মার্চ, ২০২২
  • ১৭৮ বার পঠিত

 

মেহেরপুরের গাংনীতে জোরপূর্বক জমি দখল করে ঘর নির্মাণে নিষেধ করায় মারপিট ও বিবস্ত্র করার বিচারের দাবিতে এবং জমি দখলমুক্ত করতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।
মঙ্গলবার (৩০ মার্চ), বিকেল ৫ টার দিকে গাংনী রিপোর্টার্স ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভোগী গাংনী উপজেলার কাজীপুর ইউনিয়নের বেতবাড়ীয়া গ্রামের রুবিনা খাতুন ও আম্বিয়া খাতুন।
ভুক্তভোগীরা তিনাদের লিখিত অভিযোগে জানান, তিনাদের বাড়ির পার্শে নিজস্ব জমির বাঁশ বাগানের বাঁশ কর্তন পূর্বক বিক্রি করেন একই গ্রামের মৃত তবের হালসানার ছেলে আনেজুল। এবং সে জমিতেই জোরপূর্বক ঘর নির্মাণ কাজ শুরু করেন। পরে বিষয়টি গাংনী থানাকে অবহিত করা হলে স্থানীয় ভবানীপুর ক্যাম্প এর সহযোগিতায় ঘর নির্মাণ কাজ স্থগিত করা হয়।
অবশেষে গত ২৯ মার্চ ২০২২ প্রশাসন কে উপেক্ষা করে আবারও শুরু করেন ঘর নির্মাণ কাজ । সেসময় জমির মালিক বিধবা অসহায় মৃত শহিদুল ইসলামের স্ত্রী রুবিনা খাতুন ও মৃত দুলাল হোসেনের স্ত্রী আম্বিয়া খাতুন ঘর নির্মাণে নিষেধ করলে প্রতিপক্ষ একদলীয় অত্যন্ত দুর্দান্ত, জমি দখলকারী, দুর্ধর্ষ এবং আইন অমান্যকারী, পরস্যলোভী আনেজুল এর নেতৃত্বে তার ভাই ইকরাম, মকলেচুর, ইকরামের ছেলে সুমন ও আনেজুলের স্ত্রী আফরোজা লাঠি, রামদাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় বিধবা দু’নারীর উপর। কিল, ঘুষি, লাথিসহ চালানো হয় অমানবিক নির্যাতন। এক পর্যায়ে তাদের শরীরের কাপড় ছিড়ে বিবস্ত্র করা হয়। ছিনিয়ে নেওয়া হয় গলা থেকে স্বর্ণের চেইন ও কালের দুল। যার মূল্য ৫৫ হাজার টাকা বলে ভুক্তভোগী রুবিনা জানান।
উপায় না পেয়ে নিজেদের জীবন রক্ষার্থে অসহায় বিধবা রুবিনা ফোন করেন ৯৯৯ নাম্বারে। অবশেষে প্রশাসনিক কর্মকর্তার উপস্থিতিতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেন দেশীয় অস্ত্র।
জোরপূর্বক জমি দখল করে ঘর নির্মাণ, মারপিট, অলংকার ছিনিয়ে নেওয়াসহ কাপড়চোপড় ছিড়ে বিবস্ত্র করায় সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে ঘটনার দিনেই গাংনী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী। এবং ৩০ মার্চ ২০২২ মোকাম মেহেরপুর বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধি ১৪৫ ধারায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। যেখানে উল্লেখ করা হয়েছে লোক বলহীন, আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ও অর্থহীন দুর্বল ১ম পক্ষ তফসিল বর্ণিত জমি ৯৩৫৯ নং এবং অপর একটি দলিল মূলে ক্রয় করে সত্ত্ববান ও ভোগদখল করে আসছেন। কিন্তু ২য় পক্ষ অন্যায় লোভের বশবর্তী হয়ে সে জমি জোরপূর্বক দখল করার চেষ্টা করছে।
ভুক্তভোগী রুবিনা জানান, ২য় পক্ষ জমি দখলের উদ্দেশ্য বিভিন্ন ভাবে তাকে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছেন। তাকে গুম করে দেবেন, হত্যা করবেন। এছাড়াও রুবিনার সহজ-সরল ছেলেকে অস্ত্রসহ চালান দিয়ে জেলের ভাত খাওয়াবেন বলেও জানান।
এমতবস্থায় অসহায় বিধবা রুবিনাসহ তার পরিবারটি জীবন নাশের ঝুঁকির মুখে রয়েছে। যেকোন সময় জীবন নাশের ঘটনা ঘটতে পারে।

আইনের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে অসহায় আম্বিয়া খাতুন, রুবিনা খাতুনসহ তাদের পরিবারের সদস্যদের জীবন রক্ষার্থে, তাদের নিজস্ব জমি দখলমুক্ত করতে এবং তাদের উপর অমানুষিক নির্যাতন ছাড়াও বিবস্ত্র করায় বিচারের দাবিতে ২য় পক্ষের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্মকতাদের সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে গাংনী রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আনারুল ইসলাম বাবু, সহ-সভাপতি বিল্লাল হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুস্তাফিজুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক রুবেল আহমেদ, সিনিয়র সাংবাদিক মাজিদ আল মামুনসহ ক্লাবের অন্যান্য সদস্য ও ভুক্তভোগীরা উপস্থিত ছিলেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর