গাংনীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহা‌রের তিন ঘর মামলা জা‌লে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১১ জুলাই, ২০২১
  • ৫৯১ বার পঠিত

 

মামলা জটিলতার কারণে মেহেরপুরের গাংনীর কাষ্টদহ গ্রামে ভূমিহীনদের নামে বরাদ্দ দেয়া প্রধান মন্ত্রীর উপহারের তিনটি ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ হয়ে গেছে। স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী বরাদ্দকৃত খাস জমি নিয়ে মামলা করায় সিংহভাগ নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হবার পর আর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করতে পারেননি উপজেলা প্রশাসন।
তবে প্রশাসন বলছে, শ্রীঘ্র মামলাটি নিষ্পত্তি করণ সাপেক্ষে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে সংশ্লিষ্ট পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
জানা গেছে, এ উপজেলার কাষ্টদহ গ্রামের ইসরাফ আলীর মেয়ে জরিনা ও আঙ্গুরা এবং একই গ্রামের পন্ডিত দাসের স্ত্রী লক্ষি দাসের নামে খাস জমি বরাদ্দসহ প্রধান মন্ত্রীর ঘর উপহারের জন্য নির্বাচন করা হয়। সেমতে শুরু হয় ঘরের কাজ। ঘর নির্মাণ কাজ শুরুর সময় কেহ কোন আপত্তি না জানালেও নির্মাণ কাজের শেষ সময়ে ষোলটাকা গ্রামের হবিবর রহমানের ছেলে আতিয়ার রহমান, মোখলেছুর রহমান ও আনিছুর রহমান এবং মতিয়ার রহমানের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান ও রিফাত আলী বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে প্রধান বিবাদী করে চার জনের নামে মোকাম গাংনী সহকারী জজ আদালত বরাবর একটি মামলা দায়ের করেন যার নং- দেং ৫৭/২০২১। মামলার আর্জিতে জমিটি খাস নয় এবং কাস্টদহ মৌজার সিএস ১৮৯ দাগের অর্ন্তভুক্ত। ওই জমিটি উত্তরাধির সুত্রে তারা ভোগ দখল করছেন।
আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে ওই জমির উপরে নির্মান কাজ স্থগিত রাখার আদেশ জারি করেন। বিজ্ঞ আদালতের আদেশ প্রাপ্তির পর উপজেলা প্রশাসন ওই নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন। সেই সাথে বন্ধ হয় মাটি ভরাটসহ অন্যান্য কাজ। ইতোমধ্যে নির্মানাধিন ঘরের চারপাশে পানি জমলে বিভিন্ন জন ফেইসবুকে ছবিসহ পোস্ট করলে উপজেলা প্রশাসন বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েন।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী খানম জানান, আদালতের নিষেধাজ্ঞা ও মামলা নিষ্পত্তি না হওয়ায় ওই জমিতে নির্মানাধিন ঘরের বাকি কাজ সমাপ্ত করণ ছাড়াও মাটি ভরাট করা সম্ভব হচ্ছে না। শীঘ্র মামলাটি নিষ্পত্তি করণ শেষে নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদেরকে ঘর বুঝিয়ে দেয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর