গাংনীর কাজিপুর ইউনিয়নে পরাজিত মেম্বার প্রার্থী আলাইহীমসহ আটক -৪

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২১
  • ৫০৫ বার পঠিত

তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেহেরপুরের গাংনীর কাজিপুর ইউনিয়নের বেতবাড়িয়া ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শেষে হামলা চালিয়েছে পরাজিত মেম্বর প্রার্থী আলেহীম ও তার সমর্থকরা। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটসহ সকলকে অবরুদ্ধ করে রাখে। আত্মরক্ষার্থে নিরাপত্তা কর্মীরা ১০ রাউন্ড ফাকা গুলি ছোড়ে। ঘটনাস্থল থেকে পরাজিত মেম্বার প্রার্থী আলাইহীমসহ তার চার সমর্থক কে আটক করেছে বিজিবি।

আটকৃতরা হলো- বেতবাড়িয়া গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে ও মেম্বার পদপ্রার্থী আলাইহীম (৪১), মনিরুল ইসলামের ছেলে রকেট (৪০), নাজির হোসেনের ছেলে বকুল হোসেন (৩৯) ও ভবানীপুর গ্রামের আব্দুল মোল্লাহর ছেলে জালাল উদ্দীন (৫০) আটককৃতদের গাংনী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। গাংনী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক আটককৃতদের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বেতবাড়িয়া ১০ নং ভোট বেন্দ্রে নিয়োজিত প্রিজাইডিং অফিসার সাজাহান আলী জানান, আমরা ভোট গণণা শেষে সাইদুর রহমানের কাছে পরাজিত হয় আলাইহীম। গাংনী উপজেলা কন্ট্রোল রুমে ফেরার সময় পরাজিত মেম্বার প্রার্থী আলাইহীম ও তার লোকজন গেটে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে এবং কেন্দ্রে মধ্যেকার সকলকে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে বিজিবিকে খবর দেয়া হয়। বিজিবির একটি টীম ঘটনা স্থলে পৌছালে হামলাকারিরা ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়ে।

গাংনী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, বেতবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ ও গণনা শেষে পরাজিত মেম্বর প্রার্থী আলাইহীম ও তার লোকজন হামলা করে কেন্দ্রের দায়িত্বরত প্রিজাইডিং অফিসার পোলিং অফিসার, সাংবাদিক ও নিরাপত্তারক্ষীদেরকে অবরুদ্ধ করে। এসময় কেন্দ্রের প্রধান ফটক ভাংচুর করে। আত্ম রক্ষার্থে কেন্দ্রের নিরাপত্তারক্ষী শরিফুল ইসলাম শর্টগানের ১০ রাউণ্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। পরে বিজিবির একটি টীম সেখানে গেলে আলাইহীম ও তার লোকজন পালিয়ে যায়। একঘন্টা পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সকলেই কেন্দ্র ত্যাগ করি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর