গাংনীর তেঁতুলবাড়ীয়া গ্রামে ফসলের সাথে শক্রতা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৮ অক্টোবর, ২০২১
  • ৫০১ বার পঠিত

 

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার তেঁতুলবাড়ীয়া গ্রামের মাঠে এক কৃষকের জমির কলাই ও পটল ক্ষেত কেটে তছরুপাত করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় তেঁতুলবাড়ীয়া গ্রামের পাকশির মাঠে ফসল কেটে তছরুপাত করা হয়।

স্থানীয়রা জানান পাকশির মাঠে তেঁতুলবাড়ীয়া গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে জাহাঙ্গীর আলমের ২৫ কাঠা জমি বর্গা নিয়ে একই গ্রামের আমিরুল ইসলাম ও আবুল হাশেম কলাই ও পটল চাষ করছিলেন।

রাতের আঁধারে কে বা কারা ওই ফসল কেটে তছরুপাত করেছে। এদিকে জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমার দাদার দেয়া শরিকানা ৮৪ শতক জমি দীর্ঘ বছর যাবত চাষাবাদ করে আসছিলাম। কয়েক বছর আগে আমি ওই জমি গ্রামের আমিরুল ও আবুল হাশেমের কাছে বর্গা দিই। সে মোতাবেক আমিরুল ও হাশেম পটল ও কলাই চাষ করেছিলেন।

ইদানিং ওই জমির মধ্যে ৪২শতক তেঁতুলবাড়ীয়া গ্রামের খলিলুর রহমান,সোনাতল,হয়রত আলী নিজেদের নামে গোপনে খারিজ করেন। বিষয়টি আমি বুঝতে পেরে খারিজ বাতিলের জন্য গাংনী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমুল আলমের বরাবর আবেদন করি। বর্তমান বিষয়টি বিচারাধীন। এমন অবস্থায় শক্রতাবশত ওই জমির ফসল খলিলুর রহমান,সোনাতল,হয়রত আলীসহ তার লোকজন কেটে তছরুপাত করেছেন। এ বিষয় থানায় অভিযোগ করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এদিকে খলিলুর রহমান জানান আমাদের শরিকানা জমিতে জাহাঙ্গীর আলম জোরপূর্বকভাবে দখল করেছেন। সে নিজের লোকজন দিয়ে রাতে ফসল কেটে আমাদের ফাঁসানোর চেষ্টা করছেন। গাংনী থানা সূত্র জানায় এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর