চট্রগ্রামের-রাহাত্তারপুলে অটোটেম্পু সার্ভিস বন্ধের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে শিক্ষার্থী সহ এলাকাবাসীর মানবন্ধন

 মোঃ শহিদুল ইসলাম সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ আগস্ট, ২০২২
  • ২৮১ বার পঠিত

চট্টগ্রাম নগরে চকবাজার হতে রাহাত্তারপুল পর্যন্ত চালাচল করা অটোটেম্পু সার্ভিসটির কারণে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী, অল্প আয়ের মানুষ এবং অল্প দুরত্বে যাওয়া যাত্রীরা সল্প খরচে আসা যাওয়া করছে। মাননীয় হাইকোর্ট থেকে অনুমোদন এবং সিএমপির ট্রাফিক বিভাগের যথাযত নির্দেশ মেনে চলছে অটোটেম্পু সার্ভিসটি। সম্প্রতি একটি চাঁদাবাজ চক্র চাঁদা দাবি করে না পেয়ে অটো সার্ভিসটি বন্ধে নানা ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে। পথে পথে চালকদের বাঁধা দিচ্ছে।

বুধবার (২৪ আগস্ট) সকাল ১১টায় রাহাত্তারপুল মোড়ে এক মানবন্ধনে সাধারণ যাত্রী ও চালকরা এমন অভিযোগ করেছেন। মোহাম্মদ নিশাদের পরিচালানায় মানবন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সদস্য সচিব মোহাম্মদ শামসুদ্দিন। আরও বক্তব্য রাখেন সাধারণ যাত্রী ও সমাজ সেবক মিজানুর রহমান।

উক্ত মানবন্ধনে সাধারণ যাত্রী ও সমাজ সেবক মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, অভিভাবক, চালক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং সাধারণ যাত্রীরা বক্তব্য রাখেন। মানবন্ধনে বাংলাদেশ যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সদস্য সচিব মোহাম্মদ শামসুদ্দিন বলেন, চকবাজারে চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ, কাজী মহসীন কলেজ, কাজেম আলী স্কুল, বিজ্ঞান কলেজ, মেরনসান স্কুল এন্ড কলেজ, বিএড কলেজসহ অর্ধশতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে।

এছাড়া ওই এলাকায় যোগাযোগের জন্য তেমন কোন সহজ বাহন নেই। ফলে অল্প দূরত্বের এ পথ চলাচলে লোকজনকে প্রচুর টাকা ব্যয় করতে হয়। তিনি বলেন, জনদুর্ভোগের বিষয়টি মাথায় রেখে শ্রমিক লীগের নেতা ও সমাজ সেবক নজরুল ইসলাম খোকন দেড়শ’টি অটোটেম্পু নগরির বিভিন্ন সড়কে চলাচলের জন্য ২০১৬ সাল থেকে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন রোড ট্রান্সপোর্ট কমিটির সভাপতি ও সদস্য সচিব বরাবর একাধিক আবেদন করে কোন সুফল না পেয়ে ২০২২ সালে মহামান্য উচ্চ আদালত রিট মামলা দায়ের করে। আদালত নগরীতে ৬ মাসের জন্য চলচলের নির্দেশনা এরপর বিআরটিএ, ট্রাফিক পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে প্রাথমিক ভাবে রাহাত্তারপুল থেকে চকবাজার টেম্পু সার্ভিসটি চালু করে।

মানবন্ধনে চালকরা বলেন, টেম্পু সার্ভিস চালুর পর থেকেই একদল সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ চাঁদা দাবি করে আসছে। তারা চালকদের পথে পথে বাঁধা, মারধর ও গাড়ি ভাংচুর করছে। চাঁদাবাজ চক্রটি অটোটেম্পু সার্ভিসটি বন্ধে বেনামে প্রশাসনের বিভিন্নস্তরে চিঠি দিয়ে তাদের বিভ্রান্ত করছে। মানবন্ধনে বক্তারা, চাঁদাবাজদের গ্রেফতারের দাবি জানান। মানববন্ধন শেষে এক বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর