দলের মনোনয়ন-বঞ্চিত হয়ে চট্টগ্রাম -১১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে একাত্মতায় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ

মোঃ শহিদুল ইসলাম বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৩৪ বার পঠিত

 

 

 

মনোনয়ন না পেয়ে চট্টগ্রাম ১১ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছেন হাজী জিয়াউল হক সুমন।

তিনি বলেন, আমি ১৯৮০ সাল থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলাম এবং জনপ্রতিনিধি হিসাবে এই এলাকায় ১৫ বছর ধরে কাজ করছি। প্রকৃতপক্ষে আমার এলাকার জনগণের চাপে আমি মনোনয়ন নিয়েছিলাম। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করতে দলের কেন্দ্রীয় থেকে বাধা না থাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেব। আমি আমার এলাকার চাহিদা পূরণ করতে পারবো বলে বিশ্বাস করি বলেই এলাকার সর্বস্তরের সমর্থন ও ভোট পাব বলে আত্মবিশ্বাসী। সবঠিকঠাক থাকলে আগামী নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে জনগণের সেবা করবো বলেও আশা ব্যাক্ত করেন তিনি।

চট্টগ্রাম বন্দর ও পোষাক শিল্প অধ্যুষিত এলাকা চট্টগ্রাম-১১ আসনে বর্তমান সাংসদ ও আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী এম এ লতিফ’কে ভোট যুদ্ধে পরাজিত করতে স্বতন্ত্র প্রার্থী জিয়াউল হক সুমনের পক্ষে একাট্টা হয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ৷

সংসদীয় আসনটির প্রায় প্রতিটি ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের শীর্ষ নেতাদের পাশাপাশি স্বতন্ত্র প্রার্থী সুমনকে প্রকাশ্যে সমর্থন জানাতে একই মঞ্চে সমবেত হয়েছে বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরবৃন্দ।

 

গত সোমবার (২৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নগরীর বন্দর এলাকার লিলি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে চমক দেখিয়েছেন চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন৷

মঞ্চে প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারী হিসেবে পরিচিত একাধিক ওয়ার্ড কাউন্সিলরের উপস্থিতি জানান দিচ্ছে নগর আওয়ামী লীগের মহিউদ্দিন ও নাছির উভয় বলয়ের সমর্থন জিয়াউল হক সুমনের পক্ষেই৷

চট্টগ্রাম -১১ সংসদীয় আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও আসন্ন সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী এম এ লতিফকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছেন স্থানীয় ৩৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ৩৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমন৷

 

মতবিনিনয় সভায় সংসদীয় আসনটির বিভিন্ন ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ সংসদ এম এ লতিফের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে মতবিনিময় সভায় বলেন, আমরা ১১ আসনে ১০ টি ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ পরিবার আজ জিয়াউল হক সুমনের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি৷ আমরা এম এ লতিফের এক নায়ক তন্ত্রের বিরুদ্ধে ভোট যুদ্ধে অবতীর্ণ হবো ৷

সভায় এম এ লতিফের বিরুদ্ধে জামায়াত-বিএনপি’র সাথে যোগসাজশের অভিযোগ তুলে ওয়ার্ড নেতৃবৃন্দ বলেন, চট্টগ্রামের ১০ টি ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগকে সংগঠিনিক ভাবে দূর্বল করে ফেলা হয়েছে৷ সরকার ১৫ বছর ক্ষমতায় থাকলেও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ সাংসদ লতিফের দ্বারা নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এসময় মঞ্চে উঠে সাবেক ছাত্রনেতা কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি, সাবেক নগর যুবলীগ নেতা ও বর্তমানে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হক সুমনকে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে পূর্ণ সমর্থন জানান চট্টগ্রাম-১১ আসনের অন্তর্গত প্রায় সবকটি ওয়ার্ডের বর্তমান ও সাবেক কাউন্সিলরবৃন্দ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর