নাগেশ্বরীতে পাঁচজন ব্যবসায়ীর টিসিবির ৭বস্তা ডাল আটক

নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ মে, ২০২৪
  • ১৩ বার পঠিত

 

 

 

নাগেশ্বরীতে ব্যবসায়ী খোকন মিয়া, রফিকুল ইসলাম, হযরত আলী, প্রদীপ বানিয়া ও সাইদুর রহমানের ক্রয়কৃত টিসিবির ৭বস্তা ডাল জনতার উপস্থিতিতে জব্দ করেন নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী অফিসার। সম্প্রতি স্থানীয় জনসাধারণের অভিযোগ-মতে এবারে টিসিবির পণ্য এ তেল না থাকা এবং চালের মান-নিন্মমানের হওয়ায় সুবিধাভোগীরা টিসিবির পণ্য নিতে অনাগ্রহ প্রকাশ করেন ও অনেকে ব্যবসায়ীদের নিকট টিসিবির পণ্য বিক্রি করেন।

জানা গেছে, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার বেরুবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদে গত রবিবার (৫মে ২০২৪খ্রিঃ) ইউপি চেয়ারম্যান সোলায়মান আলীর উপস্থিতিতে মেসার্স রংধনু ট্রেডার্সের ঠিকাদার কল্যাণ কুমার রায় টিসিবির পণ্য বিতরণ শুরু করেন কিন্তু সুবিধাভোগীদের অনুপস্থিতি ও নিন্মমানের চাল বিতরণের কারণে কিছু পণ্য বিতরণ অবশিষ্ট থেকে যায়। রবিবার টিসিবির পণ্য জনপ্রতি মুসুর ডাল ২কেজি, চিনি ১কেজি ও চাল ৫কেজি সুষ্ঠভাবে বিতরণ করা হয়। টিসিবির পণ্য ক্রয় করে সুবিধাভোগীরা। এদিকে অতি-গোপনে ব্যবসায়ী খোকন মিয়া, রফিকুল ইসলাম, হযরত আলী, প্রদীপ বানিয়া ও সাইদুর রহমান রবিবার সুবিধাভোগীদের কাছে টিসিবির পণ্য চাল, মুসুর ডাল ও চিনি ক্রয় করে তাদের গুদামে মওজুত করেন। পরদিন সোমবার (৬মে ২০২৪খ্রিঃ) রাত ৭টা ৩৫মিনিটে ব্যবসায়ীরা তাদের গুদাম থেকে টিসিবির মালামাল বিক্রির উদ্দেশ্য অটোরিস্কা বোঝাই করে নাগেশ্বরী যাওয়ার পথে স্থানীয়রা অটোরিস্কাসহ ৭বস্তা (৩৫০কেজি) মুসুর ডাল আটক করে ইউনিয়ন পরিষদের সামনে রাখেন। পরে রাত সাড়ে ৮টায় নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিব্বির আহমেদ ইউনিয়ন পরিষদে উপস্থিত হয়ে অটোরিক্সায় থাকা ৭বস্তা ডাল জব্দ করে নাগেশ্বরীতে নিয়ে যায় এবং পরিষদের কক্ষে থাকা প্রায় ৫০বস্তা চাল চিনি ডাল বিতরণের জন্য হিসাব নিয়ে রাখেন।

বেরুবাড়ী ইউনিয়নের স্থানীয় আব্দুস সালাম, তৈয়ব আলী, গাজিউর রহমান, এরশাদুল হক, মাহাবুর রহমান, মিজানুর রহমান, ওবায়দুর রহমান ও স্বাধীন চন্দ্রসহ অনেকে বলেন, ব্যবসায়ী খোকন মিয়া, রফিকুল ইসলাম, হযরত আলী, প্রদীপ বানিয়া ও সাইদুর রহমান টিসিবির সুবিধাভোগীদের নিকট পণ্য ক্রয় করেন এবং সোমবার সন্ধ্যায় তাদের গুদাম থেকে অটোরিস্কা বোঝাই করে নাগেশ্বরী যাওয়ার পথে সাধারণ মানুষ ৭বস্তা ডাল আটক করে। কিছুক্ষণ পরে নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপস্থিত হয়ে অটোরিক্সায় থাকা ৭বস্তা ডাল জব্দ করেন এবং জনগণের স্বাক্ষ্যমতে ব্যবসায়ীদের মালামাল হওয়ায় উক্ত টিসিবির পণ্য ডাল ৭বস্তা নাগেশ্বরী নিয়ে যায়। ইউপি চেয়ারম্যান সোলায়মান আলীকে জ্বড়িয়ে যে অপ্রচার করা হয়েছে তাহা সম্পুর্ন মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

মেসার্স রংধনু ট্রেডার্সের ঠিকাদার কল্যাণ কুমার রায় বলেন, বেরুবাড়ী ইউনিয়নে গত রবিবার টিসিবির পণ্য বিতরণ করা হয়েছে। অবশিষ্ট টিসিবির পণ্য চাল, চিনি, ডাল বিক্রি না হওয়ায় ইউনিয়ন পরিষদে জমা আছে এবং সময় নির্ধারন করে তা-বিতরণ হবে। নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয় যে টিসিবির ৭বস্তা ডাল আটক করেন সে সব পণ্য ব্যবসায়ীদের।

বেরুবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সোলায়মান আলী বলেন, রবিবার পণ্য সঠিকভাবে বিতরণ হয়েছে। ব্যবসায়ী খোকন মিয়া, রফিকুল ইসলাম, হযরত আলী, প্রদীপ বানিয়া ও সাইদুর রহমানের ক্রয়কৃত টিসিবির ৭বস্তা ডাল ইউএনও মহোদয় আটক করেন।

নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিব্বির আহমেদ বলেন, ৭বস্তা ডাল আটক করা হয়েছে। ৭বস্তা ডাল ব্যবসায়ীদের। পরিষদে ৫০বস্তা চাল চিনি ডাল জমা আছে। পরবর্তীতে বিতরণ করা হবে। তদন্ত কমিটির মাধ্যমে ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর