মেহেরপুরের ৪২ টি মন্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরী ও রং এর কাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২৮৩ বার পঠিত

আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে মেহেরপুর জেলার প্রতিটা মণ্ডপে মণ্ডপে রং ও প্রতিমা তৈরীর কাজ চলছে। চলছে জেলায় ৪২ টি মন্ডপে এবারের শারদীয় দুর্গা উৎসবের আয়োজন। গতবারের চেয়ে এবারের মন্ডপের সংখ্যা দু-একটি বাড়তে পারে বলে জানা গেছে। আগামী পহেলা অক্টোবর-২০২২ থেকে পূজা শুরু এবং ৫ ই অক্টোবর-২০২২ বিজয়া দশমী। দুর্গাপূজা কে কেন্দ্র করে মণ্ডপে মণ্ডপে শিল্পীরা কাজে ব্যস্ত। গত দু’বছর করোনা মহামারীর কারণে উৎসবমুখর পরিবেশ ছিল না।

 

সংক্ষিপ্ত পরিসরে ছিল পূজার আয়োজন। কিন্তু এবছরে কিছুটা ভিন্ন। মেহেরপুর শহরের শ্রী শ্রী হরিসভা মন্দির প্রাঙ্গণে প্রতিমা তৈরীর কাজ সম্পন্ন করে রংয়ের কাজে ব্যস্ত কুষ্টিয়ার খোকসা ও কুমারখালীর কারিগর অমল, মানিক ও গোপাল জানান, আমরা প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত সময় পার করছি। গত ৪ দিন পূর্বে এসেছি, এখনো ১ দিন লাগবে প্রতিমা রংয়ের কাজ শেষ হতে।

 

গাংনী কেন্দ্রীয় মন্দিরেও বাঁশ, খড় ও অন্যান্য সামগ্রী দিয়ে কারিগররা বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন সেখানের কয়েকজন কারিগর। মেহেরপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সূত্র জানায়, জেলার ৪২ টি মণ্ডপে দুর্গোৎসব এর আয়োজন চলছে। এরমধ্যে মেহেরপুর সদর উপজেলায় ২০ টি, গাংনী উপজেলায় ১৫ টি এবং মুজিবনগর উপজেলা ৭ টি। মেহেরপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ অশোক চন্দ্র বিশ্বাস জানান, ইতিমধ্যেই সকল তথ্যাদি জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে মন্ডপ এলাকায় পুলিশি টহল বাড়ানোর দাবী করা হয়েছে।

 

মেহেরপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আরো জানান, মণ্ডপে মণ্ডপে আলোকসজ্জার অনুমতি দেওয়া হয়েছে এবং সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা রয়েছে। মেহেরপুর সদর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, আমরা মোটামুটি খোঁজ-খবর রাখছি। সরকারি ভাবে নির্দেশনা আসলে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করা হবে। তাছাড়া স্বেচ্ছাসেবকরাও নিরাপত্তার দায়িত্বে কাজ করছেন।

 

 

মেহেরপুর পুলিশ সুপার রাফিউল আলম জানান, আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা সুষ্ঠু, সুন্দর এবং উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হওয়ার লক্ষে পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে মেহেরপুর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। একইসাথে জেলার ৩ টি থানার অফিসার ইনচার্জদের বিভিন্ন দিকনির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর