রোহিঙ্গা ও আশ্রয়দাতাদের জন্য নেদারল্যান্ডের ৩৯ লাখ পাউন্ড অনুদান

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৫৩৩ বার পঠিত

-ফাইল ফটো

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা এবং তাদের আশ্রয়দাতা স্থানীয় এলাকাবাসীর জন্য ডাব্লিওএফপি’র কাজের সহযোগিতায় নেদারল্যান্ড আরো ৩৯ মিলিয়ন পাউন্ড অনুদান দিয়েছে।

ইউনাইটেড নেশনস ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম (ডাব্লিওএফপি) রোহিঙ্গা শরণার্থী এবং তাদের আশ্রয়দাতা কক্সবাজারের স্থানীয় জনগণের জন্য সংস্থার কাজে বাড়তি সহায়তায় এগিয়ে আসার জন্য রাজকীয় নেদারল্যান্ডকে অভিনন্দন জানিয়েছে।

গতকাল সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়েছে।

ডাব্লিওএফপি বাংলাদেশের প্রতিনিধি এবং কান্ট্রি ডিরেক্টর রিচার্ড রাগান বলেন, ‘আমরা রাজকীয় নেদারল্যান্ডের ধারাবাহিক সহায়তার জন্য কৃতজ্ঞ।’

রিচার্ড রাগান বলেন, ‘এই অব্যাহত উদার সাহায্যের জন্য তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই, এর ফলে শরণার্থীদের পাশাপাশি আশ্রয়দাতা স্থানীয় লোকদেরও প্রয়োজনীয়তা বাড়ছে। এখন প্রায় ১ লাখ ৩০ হাজার মানুষ টাটকা খাবার সামগ্রী ভোগ করার আওতায় আসবে এবং পুষ্টিহীনতায় থাকা অনেক নারী পুষ্টির পাবে।’

এই সহায়তার ফলে শিবিরের বাসিন্দারা মাছ এবং তাজা শাকসব্জি পাবে। মাছ চাষের জন্য ২০টি নতুন পুকুর ও সবজির বাগান তৈরী করা হবে। স্থানীয় আশ্রয়দাতাদের মধ্যে থেকে আরো ৪ হাজার নারীকে স্বাবলম্বী হতে দক্ষতা প্রশিক্ষণ এবং প্রণোদনা দেয়া হবে।

বর্তমানে স্থানীয় আশ্রয়দাতাদের মধ্যে ২০ হাজার নারী ডাব্লিএফপি’র সহায়তায় জীবিকা কর্মসূচির আওতায় কর্মরত আছে।

বাংলাদেশে রাজকীয় নেদারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভার্ভিজ বলেন, আমাদের এই সহযোগিতায় স্থানীয় কৃষকরা পণ্য উৎপাদন করে বাজারজাতকারী এবং শরণার্থীদের চাহিদার মধ্যে সংযোগ জোরদারেও নজর দেয়া হবে ।

তিনি বলেন, যদিও আমরা শরণার্থীদের মানবিক সহায়তা কওে থাকি। এছাড়া আমরা স্থানীয় আশ্রয়দাতা দুর্বল সম্প্রদায়ের পাশে থাকতে চাই। নারীদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে তুলতে চাই, যেন তারা নিজের এবং পরিবারের জন্য তাদের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতি করতে পারে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর